আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা ঘিরে দুই দেশের টানাপোড়েন চলছে। উত্তেজনার পারদও চড়ছে। কিন্তু গত ছ’‌মাস ইন্দো–চীন সীমান্ত দিয়ে কোনও অনুপ্রবেশ ঘটেনি। বুধবার সংসদে সেকথা জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। 
চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাই— এই ছ’মাসে চীন ও পাক সীমান্ত দিয়ে কতগুলো অনুপ্রবেশের ঘটনা হয়েছে?‌ রাজ্যসভায় সেকথা জানতে চান বিজেপি সাংসদ অনিল আগরওয়াল। লিখিত জবাবে এই তথ্য তুলে ধরেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। তবে চীন সীমান্তে অনুপ্রবেশ না হলেও পাকিস্তান সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা লাগাতার চলছে, জানিয়েছেন রাই। বরফ গললে মূলত এই চেষ্টা চলে। মার্চে ৪টি, এপ্রিলে ২৪টি, মে মাসে ১১টি এবং জুলাইয়ে ১১টি অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটেছে। যদিও জুন মাসে অনুপ্রবেশ হয়নি। 
চীন আগ্রাসন বা ভারতীয় ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা করলেও অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কথায়, অনুপ্রবেশ আর আগ্রাসন বা ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা এক নয়। ‘অনুপ্রবেশ’ মূলত জঙ্গিরা করে। সেই হিসেবে ভারত–চিন সীমান্তে অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটেনি। কিন্তু আগ্রাসন ঘটেছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আরও জানিয়েছে, সীমান্ত পেরিয়ে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের চেষ্টা রুখতে সরকার একাধিক পদক্ষেপ করেছে। সীমান্তে একাধিক স্তরে সেনা মোতায়েন, গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সক্রিয়তা বাড়ানো ও সেই সব তথ্য আদানপ্রদান, প্রযুক্তিগত উন্নয়ন করা হয়েছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top