আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আজই মুকুল রায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন করলেন। আর এদিনই দিল্লিতে বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জানা যাচ্ছে শীঘ্রই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় বড়সড় রদবদল করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। সম্ভবত সেকারণেই, শাহ–নাড্ডাদের সঙ্গে বেঠক। তবে এদিনের বৈঠকে উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন নিয়েও আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনকি মুকুল রায়ের দলত্যাগের কথাও উঠতে পারে। 
এটা ঘটনা দ্বিতীয় মোদি সরকার গঠনের পর একবারও কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রদবদল করা হয়নি। এই মুহূর্তে গেরুয়া শিবিরের বহু নেতা কেন্দ্রীয় মন্ত্রিত্বের আশায় বসে আছেন। আবার মন্ত্রিসভার অনেক সদস্যই একসঙ্গে একাধিক মন্ত্রক সামলাচ্ছেন। তাই খুব শীঘ্রই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় রদবদল হতে পারে। যেমন বিহারের প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হওয়া নিয়ে জল্পনা চলছে। আবার অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়ালকেও কেন্দ্রে দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। মধ্যপ্রদেশের প্রভাবশালী নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে নিয়েও রয়েছে জল্পনা। আবার বাংলা থেকেই আরও কাউকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী করা হতে পারে। 
উত্তরপ্রদেশে আগামীবছর বিধানসভা নির্বাচন। এবছর পঞ্চায়েত নির্বাচনে খারাপ ফলের পর যোগীরাজ্য নিয়ে চিন্তায় আছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই যোগী সাক্ষাৎ করেছেন মোদি–শাহ–নাড্ডার সঙ্গে। তারপরই এই বৈঠক বেশ গুরুত্বপূর্ণ। 

 

জনপ্রিয়

Back To Top