আজকাল ওয়েবডেস্ক: দেশে একের পর এক নতুন স্ট্রেনের করোনা ভাইরাস ধরা পড়ছে। বাড়ছে সংক্রমণের হার। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জরুরি ভিত্তিতে বসল উচ্চপর্যায়ের বৈঠক। বৈঠকে হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ। 
প্রায় ২৪০ রকম নতুন স্ট্রেনের (প্রজাতি) ভাইরাস দেখা দিয়েছে দেশজুড়ে। মহারাষ্ট্রের কোভিড টাস্ক ফোর্সের অন্যতম সদস্য ড. শশাঙ্ক জোশি বলছেন, দেশজুড়ে সংক্রমণে হার বৃদ্ধির কারণ হতে পারে এই নতুন প্রজাতির উদ্ভব। মহারাষ্ট্র ছাড়া কেরল, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় এবং পাঞ্জাবেও সংক্রমণ বেড়েছে নতুন করে। 
স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, জানুয়ারি মাসে কেরল এবং মহারাষ্ট্র থেকে প্রায় ৯০০ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল জিনোম পরীক্ষার জন্য। নয়া স্ট্রেনগুলির জেনেটিক্স বুঝতে জিনোম পরীক্ষা করাতে চাইছে পাঞ্জাব এবং বেঙ্গালুরুও। এখনও অবধি সব মিলিয়ে ৬০০০ নমুনার পরীক্ষা সম্পূর্ণ হয়েছে। 
সংক্রমণের কতটা অংশ নতুন স্ট্রেন থেকে তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত নয় কর্তৃপক্ষেরা। সরকারি আধিকারিকরা মেনে নিয়েছেন, প্রয়োজনের তুলনায় কমই হচ্ছে জিনোম পরীক্ষা। আগামী কয়েক সপ্তাহে তা বাড়ানো দরকার। উপরোক্ত চারটি রাজ্যকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে কেন্দ্র। লকডাউনের সময়ের মতোই কোভিড-বিধি মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর অফিসে বসল জরুরি বৈঠক। বিষয়টি যে কেন্দ্রের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে, এই বৈঠকেই তা স্পষ্ট।     
 

জনপ্রিয়

Back To Top