আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নিসর্গে প্রাণ গেল ৫৮ বছরের এক প্রৌঢ়ের। বিদ্যুতের খুঁটি গায়ে পড়ে মৃত্যু হল মহারাষ্ট্রের আলিবাগের এই বাসিন্দার।
স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সময়ে নিসর্গের গতিবেগ ছিল ১০০ থেকে ১১০ কিলোমিটার। আলিবাগে ঝড়ের গতিবেগ ছিল ১০২ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার। রায়গড়ের আলিবাগের বাসিন্দা ৫৮ বছরের দশরথ বন্ধু ওয়াঘমারে সেই সময়ে বাড়ির দিকে ছুটছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে রাস্তাতেই তাঁর গায়ে পড়ে যায় একটি বিদ্যুতের খুঁটি তৎক্ষণাৎ প্রাণ হারান তিনি। দুপুর দেড়টা নাগাদ এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। 
পরপর দু’‌টি সপ্তাহের বুধবারেই দু’‌টি ঘূর্ণিঝড় নাড়িয়ে দিয়ে গেল ভারতকে। একটি দেশের পূর্ব উপকূলে। আরেকটি পশ্চিমে। তবে আমফানে বাংলার যা ক্ষতি হয়এছিল, তার তুলনায় অনেক কম ক্ষতি হয়েছে মহারাষ্ট্র। তাও প্রাণহানি একটি হোক বা দু’‌টি। ক্ষতি তো ক্ষতিই। তবে বুধবার রাতে মুম্বইয়ে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন। মুম্বইয়ে এমনিতেই বর্ষাকালে জল জমে যায় প্রতিবছর এদিনের বৃষ্টিতেও সেরকম আশঙ্কা রয়েছে।  

জনপ্রিয়

Back To Top