আজকালের প্রতিবেদন,দিল্লি: কর্ণাটকের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বুধবার। দিল্লিতে সংসদ অধিবেশন চলছে। দলের নেতাদের বিজেপি‌র আগ্রাসন রাজনীতির বিরুদ্ধে বিরোধীদের একত্রিত হয়ে লড়াইয়ের পরামর্শ দিয়েছেন মমতা। সেই মতো বৃহস্পতিবার সংসদে গান্ধীমূর্তির সামনে ‘‌সেভ ডেমোক্রেসি’‌ পোস্টার হাতে বিক্ষোভ দেখালেন সোনিয়া, রাহুল–‌‌সহ প্রায় সব বিরোধী দলের সাংসদ। সংসদের ভেতরেও বিরোধী ঐক্যের ছবি। রাহুল গান্ধী কৃষক আত্মহত্যার প্রসঙ্গ তোলার পর রাজনাথ সিং জবাব দেওয়ার সময় ওয়াকআউট করেন বিরোধীরা। কংগ্রেস, তৃণমূল, ডিএমকে, সপা, বসপা, এনসিপি, এনসি–‌‌র সাংসদরা শামিল হন।
মমতার নির্দেশ পেয়ে গত রাত থেকেই বিরোধী দলগুলির সঙ্গে সমন্বয়ের চেষ্টা চালান তৃণমূলের ডেরেক ও’‌ব্রায়েন। সকাল সাড়ে ১০টায় বিক্ষোভ শুরু করেন কং ও তৃণমূল সাংসদরা। বেশ কিছুক্ষণ চলে বিক্ষোভ। পরে আসেন রাহুল ও সোনিয়া। যোগ দেন ডিএমকে বাদে অন্য দলের সাংসদরা। 
গত কয়েকদিন কর্ণাটকে তৈরি হওয়া রাজনৈতিক অস্থিরতার পেছনে বিজেপি‌র ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস। গতকাল গোয়ায় কংগ্রেসের ১৫ বিধায়কের ১০ জন বিজেপি‌তে যোগ দিয়েছেন। এদিন বিক্ষোভে কর্ণাটক বা গোয়ার নাম না করে ‘সেভ ডেমোক্রেসি’ স্লোগান দিয়েছেন বিরোধী সাংসদরা। কংগ্রেসের গৌরব গগৈ বলেছেন, ‘উন্নয়নে নজর না দিয়ে বিরোধী–‌‌শাসিত রাজ্যে নির্বাচিত সরকার ভাঙার খেলায় মেতেছে বিজেপি। বিরোধীদের সঙ্ঘবদ্ধ হওয়া উচিত।’‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top