আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভুবনেশ্বরে শুক্রবার অনুষ্ঠিত হল ইস্টার্ন জোনাল কাউন্সিল (‌ইজেডসি)‌–এর বৈঠক। সেখানে আন্তঃরাজ্য নিরাপত্তা এবং সীমা সুরক্ষার বিষয় নিয়ে আলোচনা হল। আর সেই বৈঠকেই উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এছাড়াও ছিলেন চার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী–ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পটনায়েক, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার, ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন, সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী প্রেম সিং তামাং। তবে এদিনের বৈঠকে সিএএ, এনআরসি এবং এনপিআর নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি। বৈঠক থেকে বেরিয়ে সেটাই স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা এদিন বলেন, ‘বাংলার সঙ্গে যে বঞ্চনা হচ্ছে, সে নিয়েই কথা হয়েছে। বৈঠকে দিল্লির ঘটনা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছি। তবে সিএএ–এনআরসি–এনপিআর নিয়ে কোনও কথা হয়নি। আইনশৃঙ্খলা নিয়েও কোনও আলোচনা হয়নি।’‌ সাংবাদিকদের মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান, এদিনের বৈঠক শুরু হওয়ার পর তিনি দিল্লির হিংসার ঘটনা প্রসঙ্গ তুলেছিলেন। যে ভাবে নিরীহ মানুষের প্রাণহানি হয়েছে তা নিয়ে দুঃখ প্রকাশও করেন তিনি। সেই সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি কায়েম রাখার কথা বলেন। বলেন হিংসায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে হবে। এদিকে, বৈঠকের পর মধ্যাহ্নভোজেও যোগদান করেন মুখ্যমন্ত্রী। এর আগে বৈঠকে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে পুরী থেকে ভুবনেশ্বর পৌঁছন মমতা। ২০১৮ সালে নবান্ন সভাগৃহে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সভাপতিত্বে ইস্টার্ন জোনাল কাউন্সিলের বৈঠক হয়েছিল। 

জনপ্রিয়

Back To Top