আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ যার যেখানে ভোট বেশি সে সেখানে প্রার্থী হবেন। তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির এই থিওরিতেই বোধ হয় এগোচ্ছে বিজেপি। সেকারণেই মোদি বারাণসী ছাড়তে নারাজ। নতুন কোনও কেন্দ্রে প্রার্থী হওয়ার ঝুঁকি নিতে চাইছেন না তিনি। ঠিক তেমনই বিজেপি নেত্রী মানেকা গান্ধী হরিয়ানার করনাল থেকেই প্রার্থী হতে চলেছেন। এবার বড় পরীক্ষা মানেকার। যদিও বিজেপির গড় করনাল। ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে এই কেন্দ্রে জয়ী হয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী অশ্বিনী কুমার চোপড়া। পাঁচ লাখেরও বেশি ভোটে জিতেছিলেন তিনি। তাই এই কেন্দ্রে এবারও যে বিজেপির জয় নিয়ে বড় একটা সন্দেহ নেই। 
ছেলে বরুণ গান্ধীকে নিজের কেন্দ্র উত্তর প্রদেশের পিলবিট আগেই ছেড়ে দিচ্ছেন তিনি। ১৯৮৯ সাল থেকে টানা এই পিলভিট কেন্দ্র থেকেই জয়ী হয়েছিলেন মানেকা। ২০০৯ সালের লোকসভা ভোটে এই পিলভিট কেন্দ্রেই বরুণকে প্রার্থী করেছিল বিজেপি। তারপর থেকে বরুণের দখলেই রয়েছে এই কেন্দ্র তাই এবারও সেই কেন্দ্র থেকেই প্রার্থী হতে চলেছেন বরুণ গান্ধী। তাই বরুণের জয় নিয়েও কোনও অনিশ্চয়তা রাখছে না বিজেপি শিবির। 
অন্যদিকে বিজেপি নেতা গিরিরাজ সিং এবার প্রার্থী হচ্ছেন বিহারের বেগুসরাই থেকে। এই কেন্দ্র থেকেই ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে জয়ী হয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী ভোলা সিং। ৫৮ হাজারেরও বেশি ভোটে আরজেডি প্রার্থী তনভির হাসানকে হারিয়েছিলেন তিনি। তবে বেশিদিন সেই জয় ভোগ করতে পারেননি ভোলা সিং। ২০১৮ সালের অক্টোবরেই দিল্লির রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালে মারা যান তিনি। তবে এবারে এই কেন্দ্রে বিজেপিকে কড়া টক্কর দিতে পারেন কানহাইয়া কুমার। যদিও এখনও বেগুসরাই থেকে তাঁর প্রার্থী হওয়ার কথা ঘোষণা হয়নি। 

জনপ্রিয়

Back To Top