আজকালের প্রতিবেদন,আগরতলা: দক্ষিণ ত্রিপুরার বিলোনিয়ায় গেরুয়া তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত লেনিন মূর্তিটি সারাতে আগ্রহী বিলোনিয়া পুরসভা। কিন্তু যেহেতু তা খরচসাপেক্ষ, মানুষের থেকে চঁাদা তুলে মূর্তিটির মেরামতি হতে পারে। অথবা কোনও সংগঠন যদি মূর্তিটি নিয়ে নিতে চায়, তা–‌ও হতে পারে। জানালেন বিলোনিয়া পুর পরিষদের কার্যনির্বাহী প্রধান অমিত ঘোষ। আপাতত মুণ্ডহীন মূর্তিটি বিলোনিয়ার কলেজ চত্বর থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে পুরসভায়। প্রায় ১১ ফুট লম্বা ফাইবার গ্লাসের মূর্তিটির মাথা ভেঙে, সেটি নিয়ে লাথালাথি করেছিল গেরুয়া গুন্ডারা। তার আগে বুলডোজার চালিয়ে বেদি–সমেত উপড়ে ফেলা হয়েছিল মূর্তিটি। সেই থেকে কলেজ প্রাঙ্গণে ওইভাবেই মূর্তিটি পড়ে ছিল। স্থানীয় পুর প্রশাসন এবং কলেজ কর্তৃপক্ষের অস্বস্তির কারণ হয়ে। ‘‌কারণ আমরা ঠিক বুঝে উঠতে পারছিলাম না, কী করা উচিত। এলাকার লোক কী চাইছেন, তঁাদের কী মেজাজ–মর্জি, আন্দাজ পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষে মূর্তিটি পুরসভা প্রাঙ্গণে এনে রাখার সিদ্ধান্ত হয়।’‌ জানান অমিত ঘোষ। তবে মূর্তিটি ভেতরে রাখা হবে, না বাইরে, সেটা এখনও ঠিক হয়নি। যেখানেই থাকুক, মাথাভাঙা মূর্তিটি আপাতত ভাল করে মুড়ে রাখা হবে। কারণ দৃশ্যত একেবারেই ভাল লাগছে না কবন্ধ মূর্তিটি। আর বিলোনিয়া কলেজ চত্বরের ওই জায়গায় নতুন কোনও লেনিন মূর্তি বা পুরনোটিই সারিয়ে ফের বসানো হবে কি না, তার জবাবে পুর পরিষদ প্রধানের বক্তব্য, সেটা বিলোনিয়ার মানুষই ঠিক করুন। এ নিয়ে টাউন হলে একটা বৈঠক ডাকা হবে। বিলোনিয়া শহরেই আছে মহাত্মা গান্ধী এবং নেতাজির একটি করে মূর্তি। আর মার্কসের একটি মূর্তি আছে একটু দূরে। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top