আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌শতাব্দী পুরনো অযোধ্যা জমি বিবাদ মামলার রায় ঘোষণার আগে থেকেই চলেছিল প্রস্তুতি পর্ব। সাম্প্রদায়িক অশান্তি এড়ানোর জন্য কড়া নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছিল। দেশের যে প্রান্তগুলিতে সাম্প্রদায়িক অশান্তির প্রবল সম্ভাবনা ছিল, সেখানে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে কড়া সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এতসব কিছুর মাঝেও অনন্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নজির গড়ল কেরল। হিন্দু পরিবারের মেয়ের বিয়ের জন্য ধর্মীয় উৎসব বাতিল করে দিল মসজিদ কর্তৃপক্ষ। ঘটনাটি ঘটে রবিবার কেরলের কোঝিকোড় জেলার পালেরি গ্রামে। মসজিদের পাশেই বাড়ি ওই হিন্দু পরিবারের। প্রত্যুষা নামে ওই হিন্দু মেয়েটির বিয়ের খবর পেয়েই মুসলিম ধর্মের মিলাদ–উন–নবি উৎসব বাতিল করে দেয় মসজিদ কর্তৃপক্ষ। মহম্মদের জন্মদিবস পালনের উৎসব মিলাদ–উন–নবি। মসজিদ কর্তৃপক্ষ সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছে, ‘‌গ্রামে যাতে সাম্প্রদায়ির সম্প্রীতির পরিবেশ বজায় রাখতেই মসজিদের মহল কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মিলাদ–উন–নাবি উৎসবে গ্রামে সারাদিন ধরে মাইক বাজানো হয়। খাওয়া দাওয়া হয়। বিয়ের অনুষ্ঠানের মধ্যেই এই উৎসব চললে সমস্যা হতে পারত। সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আমরা পরের সপ্তাহে রবিবার এই উৎসব পালন করব।’‌ বিয়ের জন্যে ধর্মীয় উৎসব বাতিল করে দেওয়ার কথা জানতে পেরে সদ্য বিবাবহিত প্রত্যুষা এবং তাঁর স্বামী বিয়ের পরই ওই মসজিদে গিয়ে মসজিদ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে আসেন।    ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top