আবু হায়াত বিশ্বাস, দিল্লি: গায়ে লাল সোয়েটার। গলায় নীল মাফলার। মাথায় আম আদমি পার্টির সাদা টুপি। দিল্লির অলিগলিতে প্রচার শুরু করে দিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দলীয় প্রার্থীর সমর্থ‌নে বুধবার ‘‌মাফলার ম্যান’‌ রোড শো করলেন বাদলি ও আদর্শ নগর বিধানসভা কেন্দ্রে। 
ভিড়ের ঠেলায় দু’‌দিন আগে মনোনয়ন জমা করতে পারেননি কেজরিওয়াল। করেছিলেন পরের দিন। সমর্থকদের ভিড়ে আপ্লুত দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী এদিন হুড–খোলা জিপে দাপিয়ে প্রচার করলেন। গাড়ি যত এগোল ভিড়ের বহর দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হল। দুর্গাচক বাজারে তখন কেজরি–দর্শনে আট থেকে আশি। হাতে মাইক্রোফোন তুলে নিয়ে মানুষের উদ্দেশে তাঁর আবেদন, ‘‌পানীয় জল, বিদ্যুৎ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য পরিষেবায় গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে আপ সরকার। সর্বোচ্চ সুযোগ–‌সুবিধা পেয়েছে দিল্লিবাসী। তাই কাজের নিরিখে ভোট দিন আমাদের।’‌ 
মনোনয়ন জমার পর কেজরিওয়াল প্রথম নির্বাচনী প্রচার শুরু করলেন বাদলি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে। হুড খোলা জিপের পিছনের গাড়িতে সামনে পিছনে মিলিয়ে সাত সাতটা মাইক। বেজে চলেছে দলের নির্বাচনী থিম সং ‘‌লগে রহো কেজরিওয়াল’। মাঝেমধ্যে অবশ্য তা থামিয়ে চলছে মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণ। কয়েক মিনিটের ভাষণে উঠে আসছে, ডেঙ্গু মোকাবিলায় সাফল্য থেকে মহিলা সুরক্ষায় সরকারি পদক্ষেপ, পানীয় জল থেকে ২০০ ইউনিট বিদ্যুৎ ফ্রি করে দেওয়া, নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সিসি টিভি ক্যামেরা লাগানোর কথাও। দিল্লির ভোটারদের মন পেতে বললেন, ‘‌আমি পরিবারের বড় ছেলের মতো কাজ করেছি। সংসারের বড় ছেলের কাঁধে অনেক দায়িত্ব, কর্তব্য থাকে। সব কিছুতেই নজর দিতে হয়। তেমনই দিল্লিবাসীর জন্য আমি সেই কাজটাই করার চেষ্টা করেছি।’‌ 
স্বরূপনগরের বাসিন্দা মান সিং, অমিত কুমার, প্রকাশ বর্মাদের সঙ্গে কথা হচ্ছিল। নিজেদের বিজেপি সমর্থক দাবি করে তাঁরা বললেন, ‘‌লোকসভা নির্বাচনে মোদিজিকে ভোট দিয়েছি। তবে, বিধানসভা নির্বাচনে কেজরিওয়ালকেই সমর্থন করছি। দিল্লিতে শিক্ষা, স্বাস্থ্যে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। আপ সরকারের কাজকর্ম অস্বীকার করতে পারি না।’‌ তাঁদের কথায়,‌ কেজরিওয়াল সরকার সাধরণ মানুষের প্রত্যাশা অনেকটাই পূরণ করেছে। স্থানীয় আপ বিধায়ক আপদে–‌‌বিপদে পাশেও দাঁড়ান। এর আগের বিধায়করা সাধারণ মানুষের ধরা ছোঁওয়ার বাইরে থাকতেন। কেজরিওয়ালও বলছেন, ‘‌ইসবার ভোট পড়েগা কাম পর!‌’ বিজেপি–‌‌কংগ্রেস স‌মর্থকদের উদ্দেশে বলছেন, মূল্যবান ভোটটি অন্য দলকে দিয়ে নষ্ট করবেন না। 
বিজেপি–‌‌কংগ্রেসের স্টার প্রচারকদের মোকাবিলায় কেজরিওয়ালকে এবার বেশি বেশি সভা, রোড শো করতে হবে। আপ–এর স্টার ক্যাম্পেনার একা কেজরিওয়াল। তাই মনোনয়ন প্রক্রিয়া শেষ হতেই কেজরিওয়াল, মণীশ শিশোদিয়া, গোপাল রায়, সঞ্জয় সিংরা প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। রোড শো’‌তে ভিড় দেখে বেজায় খুশি আপ নেতা সঞ্জয় বসু। তিনি দাবি করলেন, কেজরিওয়াল সরকারের উন্নয়নের সামনে নরেন্দ্র মোদি–‌অমিত শাহের ক্যারিশমা কাজ করছে না। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top