আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ইরানের সঙ্গে সম্পর্কে অবনতি হয়েছে আমেরিকার। সেই কারণে ইরান থেকে তেল আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অনেক দেশই আমেরিকাকে সমর্থন করেছে। তবে ভারত এখনও সরাসরি সে ব্যাপারে কিছু জানায়নি। অবশ্য তার আগেই ইরানের হয়ে ভারতকে কড়া সতর্কবার্তা দিলেন ভারতে নিযুক্ত সে দেশের উপ–রাষ্ট্রদূত মাসুদ রেজভানিয়ান রাহাঘি। তাঁর কথায়, ভারত ইরানের চাবাহার বন্দরে বিনিয়োগের ব্যাপারে যে যে  প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তা পালন করছে না। শুধু তাই নয়, ইরান থেকে তেল আমদানি বন্ধ করলেও বিপদে পড়তে হবে নয়াদিল্লিকে। ভারত যে সব সুযোগ–সুবিধা ইরানের কাছ থেকে পায়, সেগুলিই বন্ধ হয়ে যেতে পারে। একটি সেমিনারে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘‌এটা খুবই দুর্ভাগ্যের যে চাবাহার বন্দরে বিনিয়োগ এবং দু’‌দেশের মধ্যে সংযোগ স্থাপন নিয়ে ভারত যে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, সেগুলি এখনও তাঁরা পূরণ করেনি। আশা করছি, খুব শিগগিরি ভারত এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।’‌ একইসঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘ভারত যদি ইরান থেকে তেল কেনার বদলে ইরাক, সৌদি আরবের মতো দেশগুলি থেকে অপরিশোধিত তেল আমদানি করে, তাহলে তেহেরানের পক্ষ থেকে কোনও সুযোগ–সুবিধা পাবে না নয়াদিল্লি।‌’ এর পাশাপাশি দু’‌দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ককে আরও মজবুত করার আহ্বানও জানান‌ সে দেশের উপ–রাষ্ট্রদূত মাসুদ রেজভানিয়ান রাহাঘি। কূটনীতিকদের মতে, মার্কিন চাপে ভারত যাতে ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ না করে সেজন্যই এধরনের বক্তব্য রেখেছেন রাহাঘি। কারণ ইরাক এবং সৌদি আরবের পর ইরানই সবচেয়ে বেশি অপরিশোধিত তেল ভারতে রপ্তানি করে। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top