আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অত্যাধুনিক ব্রহ্মস সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলের পরীক্ষায় সাফল্য পেল ভারত। আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে এই পরীক্ষা করা হয়। এটি লক্ষ্যভেদ করতে সফল হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এর আগেই ওই ক্ষেপণাস্ত্রের একদফা পরীক্ষা হয়ে গিয়েছিল গতমাসে। তবে চূড়ান্তভাবে তা পরখ করে নিতেই ছিল এদিনের পরীক্ষা। তাতেও মিলল সাফল্য।
মঙ্গলবার সকাল দশটায় এই পরীক্ষা করা হয়। ভারতের প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা ডিআরডিও এই পরীক্ষাটি করে। এদিন একটি দ্বীপ থেকে এটি ছোঁড়া হলে সেটি অন্য দ্বীপে থাকা লক্ষ্যবস্তুকে নিখুঁতভাবে আঘাত করে। আগে থেকেই জানা ছিল নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে দেশের ভাণ্ডারে থাকা শক্তিশালী অস্ত্রটির পরীক্ষা করা হবে। 
শব্দের চেয়ে বেশি দ্রুতগামী (সুপারসনিক) ব্রহ্মস পৃথিবীর অন্যতম দ্রুতগামী ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র। প্রাথমিকভাবে এর পাল্লা ছিল ২৯০ কিলোমিটার। সে সময় কিছু আন্তর্জাতিক প্রযুক্তিগত বিধিনিষেধের কারণেই এই সীমারেখা তৈরি করা হয়েছিল। এরপর ভারত মিসাইল টেকনোলজি কন্ট্রোল রেজিমের (এমটিসিআর) সদস্য হওয়ার পরে রাশিয়ার নয়া প্রযুক্তির সহায়তায় ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা বাড়িয়ে প্রায় ৪৫০ কিলোমিটার করা হয়।
প্রথাগত এবং পরমাণু বিস্ফোরক বহনে সক্ষম ব্রহ্মস যুদ্ধজাহাজ বা সুখোই–৩০ এর মতো যুদ্ধবিমান থেকে ছোড়া যায়। ব্রহ্মসের জাহাজ বিধ্বংসী সংস্করণটি ভারতীয় বায়ুসেনা ব্যবহার করে। 

জনপ্রিয়

Back To Top