আজকালের প্রতিবেদন 
দিল্লি, ১৪ আগস্ট

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নিরাপত্তার ঘেরাটোপে রাজধানী দিল্লি। তবে করোনার আবহে ৭৪তম স্বাধীনতা দিবসের নিয়মমাফিক অনুষ্ঠানে শনিবার লালকেল্লায় আমন্ত্রিত মাত্র ৪ হাজার। কোথাও কোনও বড় জমায়েত হচ্ছে না। নিয়ন্ত্রিত হয়েছে লালকেল্লার আমন্ত্রিতদের তালিকাও। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্য, তাঁদের পরিবার, আমলা, সংবাদমাধ্যমের কর্মী ও কিছু সাধারণ মানুষ যোগ দেবেন অনুষ্ঠানে। যাঁরা আমন্ত্রণপত্র পেয়েছেন, শুধু তাঁরাই অংশ নিতে পারবেন। লালকেল্লার ভেতর ও বাইরে নিয়মিত স্যানিটাইজ করা হয়েছে। প্রতিটি প্রবেশ ও প্রস্থান–‌পথে হবে থার্মাল স্ক্রিনিং। নজরদারিতে বসেছে বিশেষ ক্যামেরা। সকলকে মাস্ক পরে আসতে হবে। সামাজিক দূরত্ববিধি মানা হবে কড়া ভাবে। চারটি মেডিক্যাল বুথে মিলবে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার। যাঁদের করোনা উপসর্গ আছে বলে মনে হবে, তাঁরা ওই মেডিক্যাল বুথে যোগাযোগ করতে পারবেন। থাকছে অ্যাম্বুল্যান্সও। 
স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে প্রতি বছর দিল্লির স্কুলপড়ুয়াদের জমায়েত হয়। এবার হচ্ছে না। শুধু এনসিসি–‌র ক্যাডাররা থাকছেন। গার্ড অফ অনারের জওয়ানদের রাখা হয়েছে নিভৃতবাসে। সেনার তিন বাহিনীর ২২ জন জওয়ান গার্ড অফ অনারে যোগ দেবেন। সকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে গার্ড অফ অনার প্রদর্শন করবেন তাঁরা। এর পরে জাতীয় সঙ্গীত, জাতীয় পতাকা উত্তোলন, ২১টি গান–‌স্যালুট। তার পর জাতির উদ্দেশে ভাষণ প্রধানমন্ত্রীর। অনুষ্ঠানে হাজারের বেশি করোনাজয়ী হাজির থাকবেন। প্রতি আমন্ত্রণপত্রের সঙ্গে ছাপানো হয়েছে কোভিড নিয়ন্ত্রণবিধি। ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top