সংবাদ সংস্থা
মুম্বই, ২৫ সেপ্টেম্বর

কাজের বেলায় কাজি, কাজ ফুরোলে পাজি!‌ বিজেপি–‌কে তীব্র কটাক্ষ শিবসেনার।
মুম্বইয়ের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে কলঙ্কিত করে অকেজো করার চেষ্টা চলছে। এখান থেকে বিখ্যাত লোকজনকে তাড়ানোর পাকাপোক্ত বন্দোবস্ত করতে মরিয়া কেন্দ্র। বদনাম করলেও বলিউডের তারকাদের সঙ্গে গা ঘষাঘষি করতে কেউ দ্বিধা করেনি। অভিযোগ শিবসেনার। যে যাই করুক চিত্রনগরীর প্রাসঙ্গিকতা অটুট থাকবে বলে দলীয় মুখপত্র ‘‌সামনা’‌য় দাবি করেছে উদ্ধব ঠাকরের দল। 
অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তের জেরেই এসে গেছে মাদকের বিষয়টি। বিহারে বিজেপি এবং জেডিইউ ওই রাজ্যের সন্তান সুশান্তের মৃত্যুকে ভোটের রাজনীতিতে কাজে লাগাতে চাইছিল বলে অভিযোগ। ভোট এসে গেছে বিহারে। সে নিয়ে প্রশ্ন করায় শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত আজ বলেন, ওদের তো উন্নয়ন বা সুশাসনের ইস্যু নেই, তাই এসব দরকার। প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন রাউত, কী বেরোল সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে?‌ বস্তুত, সিবিআই তদন্ত থেকে এমন কিছু বেরোয়নি এখনও, যা থেকে বলা যেতে পারে সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যা নয়, হত্যা। বরং সুশান্তের মাদকাসক্তির খবরও বেরিয়ে এসেছে। সেদিকেই ইঙ্গিত করেন রাউত। তবে বিহারে ভোটের দিন ঘোষণা প্রসঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, অতিমারী কি চলে গেছে?‌ 
মাদকাসক্তি ও বলিউডের মাদকযোগ নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশ। বলিউডের মাদকযোগে দীপিকা পাডুকোন, সারা আলি খান–সহ একাধিক জনপ্রিয় তারকার নাম উঠে এসেছে। তাঁদের তলব করছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (‌এনসিবি)‌। কখনও মুম্বইকে অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে, কখনও বলিউডকে মাদকের আখড়া হিসেবে দেখানো হচ্ছে বলে ফুঁসে উঠেছে শিবসেনা। 
‘‌সামনা’‌য় শিবসেনা লিখেছে, ‘প্রয়োজনের সময় বার বার হিন্দি চলচ্চিত্র জগৎ, বলিউডের তারকাদের কেন্দ্র ও রাজ্যের রাজনীতিবিদরা ব্যবহার করেছেন। এখন এমন একটা পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে যাতে সিনেমা শিল্প ও সেখানে যাঁরা কাজ করেন সেই সব নামীদামি মুম্বই ছেড়ে চলে যান। খুব সুচারুভাবে দেখানো হচ্ছে অভিনেতা, নির্দেশক, সিনেমাটোগ্রাফাররা অভিনয় থেকে বিদায় নিয়েছেন। নিষ্কর্মা হয়ে রয়েছেন তাঁরা। শিল্পকর্ম ছেড়ে তাঁরা সব যে যাঁর বাড়ির বারান্দা, ব্যালকনিতে গাঁজা আর আফিমের চাষ করছেন।’‌ শিবসেনা আরও বলেছে, ‘‌প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি–সহ কয়েকটি রাজ্য নিজেদের মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য এই চলচ্চিত্র জগতের তারকাদেরই তো ব্যবহার করেছেন। গুজরাটে সলমন খানকে নিয়ে ঘুড়ি উড়িয়েছেন মোদি। গুজরাট রাজ্যের ব্র‌্যান্ড অ্যাম্বাসাডর অমিতাভ বচ্চন। সাধারণ মানুষকে আম খাওয়া শেখানোর দায়িত্ব অভিনেতা অক্ষয় কুমারকে দিয়েছিলেন মোদি। মোদিকে নিয়ে তৈরি সিনেমায় অভিনয় করেছেন বিবেক ওবেরয়। একটি সিনেমায় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনুপম খের।’‌ বলিউডি তারকাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রের ঘনিষ্ঠতার একাধিক দৃষ্টান্ত হাজির করেছে শিবসেনা।‌‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top