আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অনলাইন ডেটার ওপর কেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণ জরুরি। অনলাইন ডেটার গোপনীয়তা কীভাবে রক্ষা করা হবে, বিবেচনা করুক কেন্দ্র নিজে। জানাল সরকারের নিয়োগ করা একটি আট সদস্যের কমিটি। ৭২ পাতার একটি খসড়া জমা দিয়েছে সেই কমিটি। পাশাপাশি ডেটার মানিটাইজেশন এবং শেয়ারিং পদ্ধতি কী হবে, সেবিষয়েও কেন্দ্রই সিদ্ধান্ত নিক, পরামর্শ ওই কমিটির। বিশেষজ্ঞদের দাবি, বহুজাতিক সংস্থাগুলির একচেটিয়া বাজারে লাগাম টানতে এই রিপোর্টের ভিত্তিতেই আগামীদিনে আনা হতে পারে নয়া নীতি। রিপোর্টে লেখা হয়েছে, ‘‌অনলাইন ডেটার আর্থ–সামাজিক গুরুত্ব কীভাবে বদলাবে, তা বাজারের ওপর ছেড়ে দেওয়া চলে না। নিয়ন্ত্রণ অবশ্যই প্রয়োজন। সংস্থাগুলি যাতে সব নিয়ম বিধি মেনে চলে, তা নিশ্চিত করা জরুরি। দরকারে তথ্য চাইলে সংস্থার তরফে যাতে কোনও বাধা না আসে, কিংবা গোপন তথ্য নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি রুখতেই কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ জরুরি।’‌ ফেসবুক, অ্যামাজন, গুগল এবং উবারের মতো সংস্থার উল্লেখ রয়েছে এই খসড়ায়। বলা হচ্ছে, এই সংস্থাগুলি ভারতের বাজারে অনলাইন ডেটা নিয়ে একচেটিয়া কারবার চালায়। যে কারণেই নতুন কোনও সংস্থা ভারতের বাজারের ঢুকতে পারে না। ব্রিটেন বা চীনের মতো ভারতও ডিজিটাল অর্থনীতিতে কড়া নিয়ন্ত্রণ চাইছে। অনলাইনে ব্যক্তিগত তথ্যের ওপর সরকারি নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত বিল ইতিমধ্যেই সংসদে ঝুলছে। এবার যে তথ্য ব্যক্তিগত নয়, সেগুলির ওপরেও নিয়ন্ত্রণ চাইছে কেন্দ্র। হয়ত আগামীদিনে এই সংক্রান্ত বিলও পাশ হতে পারে, মনে করছেন বিশেষজ্ঞদের একাংশ।  

জনপ্রিয়

Back To Top