আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিলেন দেশবাসী। রবিবার রাত ন'টা বাজতেই নিভে গেল অধিকাংশ বাড়ির আলো। ছাদে, বারান্দায়, ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে প্রত্যেকে মোমবাতি, প্রদীপ কিংবা মোবাইলের ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালালেন। করোনার অন্ধকার দূর করার জন্য একতার বার্তা দিলেন দেশের সাধারণ মানুষ। টানা ন’‌মিনিট বন্ধ ছিল দেশের বাড়ি–ঘরগুলোর আলো। খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রদীপ জ্বালান। তবে মুদ্রার এপিঠ যেমন ছিল, তেমনই ওপিঠে চলল থালা বাজানো, বাজি ফাটানো। কথা ছিল কেবল আলো নিভিয়ে প্রদীপ, মোমবাতি কিংবা মোবাইলের ফ্ল্যাশ জ্বালানোর। তবে অধিকাংশ মানুষই বাজি ফাটাতে শুরু করেন। টানা ১৫–২০ মিনিট ধরে চলে বাজি পোড়ানো। ছিল শব্দবাজিও। এমনকি মানুষ ফানুসও উড়িয়েছেন। অনেকে আবার থালা বাজাতেও শুরু করেন। কানে আসে 'জয় শ্রী রাম'-এর স্লোগানও।

 

 

 

 এদিকে গোটা দেশে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থেকে শুরু করে বিজেপি নেতা, পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ-সহ বিজেপি নেতৃত্ব বাড়ির বাইরে মোমবাতি–প্রদীপ জ্বালান। পশ্চিমবঙ্গের প্রচুর মানুষ প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়েছেন। অনেক বাড়িতেই আলোর বদলে মোমবাতি, প্রদীপ জ্বলে ওঠে। বাজির আওয়াজও কানে আসে। তাতে ছিল শব্দবাজিও। 

 

জনপ্রিয়

Back To Top