আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌  গত এক সপ্তাহে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ২০ শতাংশ। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১৪ লাখেরও বেশি। সারা দুনিয়ার মধ্যে করোনা সংক্রমণ সবথেকে দ্রুত বাড়ছে ভারতেই। এ কথা বলছে ব্লুমবার্গের করোনা ভাইরাস ট্র‌্যাকার রিপোর্ট। 
দুনিয়ায় করোনা আক্রান্তের নিরিখে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে আমেরিকা ও ব্রাজিল। ভারতে এখন মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ লাখ ৮৩ হাজার ১৫৬। সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, ভারতে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৪৭ হাজার ৭০৩ জন। একদিনে করোনায় মৃত্যু ৬৫৪। দেশে করোনায় এখন পর্যন্ত মৃত ৩৩ হাজার ৪২৫ জন। করোনা থেকে একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৩৫ হাজার ১৭৫ জন। 
দেশে সবথেকে বেশি সংক্রমণ হচ্ছে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং কর্নাটকে। মহারাষ্ট্রে মোট আক্রান্ত হয়েছেন তিন লক্ষ ৮৩ হাজার ৭২৩ জন। তামিলনাড়ুতে মোট আক্রান্ত দু’লক্ষ ২০ হাজার ৭১৬ জন। সম্প্রতি রাজধানী দিল্লিতে দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক লক্ষ ৩১ হাজার ২১৯ জন। গত কয়েক দিনে অন্ধ্রপ্রদেশ ও কর্নাটকে লাফিয়ে বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। কর্নাটকে মোট আক্রান্ত এক লক্ষ এক হাজার ৪৬৫ জন ও অন্ধ্রপ্রদেশে মোট আক্রান্ত এখন লক্ষ দু’হাজার ৩৪৯ জন।
বিশেষজ্ঞদের মতে, ভারতে আদতে আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই বেশি। যেহেতু এখানে করোনা পরীক্ষার হার কম, তাই অনেক সময়ই সঠিক পরিসংখ্যান মেলে না। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ জানিয়েছে, রবিবার সারা দেশে পাঁচ লক্ষ ১৫ হাজার ৪৭২ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। 
পরিসংখ্যান বলছে, ভারত এবং ব্রাজিলেই করোনা পরীক্ষার হার সবথেকে কম। ভারতে প্রতি ১০০০ জনের মধ্যে ১১.‌৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। ব্রাজিলে ১০০০ জনে ১১।৯৩ জনের পরীক্ষা হচ্ছে। সেখানে আমেরিকায় প্রতি হাজার জনে ১৫২.‌৯৮ জন এবং রাশিয়ায় ১৮৪.‌৩৪ জনের পরীক্ষা করা হচ্ছে। অক্সোফর্ডের একটি গবেষণা দল এই পরিসংখ্যান তুলে ধরেছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top