আজকাল ওয়েবডেস্ক: রাতারাতি কোটিপতি হয়ে গেলেন অরুণাচল প্রদেশের এই প্রত্যন্ত গ্রামের বাসিন্দারা। রাজ্যের প্রত্যন্ত একটি অঞ্চল বোমজা। এখানকার বাসিন্দাদের রোজগার বলতে পশুপালন আর চাষবাস। তাও পাথুরে জমিতে তেমন ভাল ফলন হয় না। গোটা গ্রামটাই অধিগ্রহণ করতে চেয়ে রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছিল সেনা বাহিনী। তাওয়াংয়ের নিকটবর্তী এলাকা হওয়ায় এখানে সেনাবাহিনীর জওয়ানদের জন্য গৃহনির্মাণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে গ্রামের বাসিন্দারা তাঁদের জমি দিতে রাজি হয়ে যান। তাঁর পরিবর্তে তাঁদের হাতে প্রায় দেড়কোটি টাকা। অরুণাচলের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খাণ্ডু জানিয়েছেন গ্রামের প্রায় ২০০ একর জমি অধিগ্রহণ করা হবে। সেজন্য ২৯ টি পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় কোটি টাকার চেক। ৬,৭২,২৯,৯২৫ কোটি টাকা থেকে  ২,৪৪,৯৭,৮৮৬ কোটি টাকার চেক গ্রামবাসীদের হাতে তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী নিজে। মোট ৪১ কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে এরজন্য। পুরোটাই দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। 
মুখ্যমন্ত্রী পেমা খাণ্ডু জানিয়েছেন অরুণাচলের উন্নতীর লক্ষ্যেই এই জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। গ্রামবাসীরাও তাতে স্বাগত জানিয়েছেন। দ্রুত তাওয়াং পর্যন্ত রেল যোগাযোগ তৈরি হয়ে যাবে। অরুণাচল প্রদেশের একাধিক প্রত্যন্ত এলাকায় সড়ক ও রেল পথ পরিষেবা চালু করা হবে। বেশ কয়েকটি জায়গায় তার সূচণাও হয়ে গিয়েছে। ২০১৮র বাজেটে অরুণাচলের উন্নয়ন খাতে মোটা টাকা বরাদ্দ করেছে মোদি সরকার। ‌‌

গ্রামবাসীদের হাতে ক্ষতিপূরণ তুলে দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী পেমা খাণ্ডু। 

জনপ্রিয়

Back To Top