আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিয়ের মরশুম চলছে। আর বিয়েবাড়ির প্রসঙ্গ উঠলেই সেখানে একের পর এক মজার ঘটনা ভেসে ওঠে প্রত্যেকের মনে। তবে সবচেয়ে বেশি মজা পাওয়া যায় বরের জুতো লুকিয়ে। কারণ তার বিনিময়ে বরের পকেট থেকে পাওয়া যায় কড়কড়ে টাকা। বহুদিন ধরেই বিয়েবাড়িতে চলে আসছে এই রীতি। কিন্তু মাঝেমধ্যে মজার ঘটনাও বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। যার প্রমাণ মিলল উত্তরপ্রদেশের বাদাউনে। যেখানে জুতো চুরি করার অভিযোগে এক ব্যক্তি পিটিয়ে মেরে ফেলল বর এবং তার চার বন্ধু। মৃতের নাম রামসরন। বয়স ৪২ বছর।  ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে বাদাউনের সুরজপুর গ্রামে। অভিযুক্ত বরের নাম সুরেন্দ্র। ঘটনার আগে বিয়ের জন্য জুতো খুললেও অনুষ্ঠানের পরে সুরেন্দ্র দেখতে পান, তাঁর জুতো নেই। তন্নতন্ন করে খোঁজ পাওয়া যায়নি হারানো জুতোর। এরপরই সন্দেহ করা হয় রামসরনই সেই জুতো লুকিয়েছে। আর সেই সন্দেহের বশেই ওই ব্যক্তিকে মারধর শুরু করেন সুরেন্দ্র এবং তাঁর বন্ধুরা। গুরুতর আহত অবস্থায় জেলা হাসপাতালে রামসরনকে ভর্তি করা হলেও সেখানেই তিনি মারা যান। এরপরই মৃতের পরিবারের লোক থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিস ইতিমধ্যে বর সুরেন্দ্র এবং তাঁর চার বন্ধুর বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করেছে। পাশাপাশি রামসরনের মৃতদেহকে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top