আজকাল ওয়েবডেস্ক: সোনার তৈরি বিছানায় ঘুমোনোর সখ অনেকেরই থাকতে পারে। তবে সেই সখ পুরন না হলেও সোনার রেজারে দাড়ি কামানোর সখ অন্তত মেটাতে পারবেন। হ্যাঁ,  ঠিক তাই। পুণেতে এক সেলুন মালিক অভিনাশ বরুণদিয়া এমনই এক অভিনব বুদ্ধি মাথায় এনেছেন।
 লকডাউনের জেরে বসে পড়া সেলুন ব্যবসাকে অভিনব উপায় বের করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। ভাবনাটা তখুনি মাথায় আসে যখন অতিমারি পরিস্থিতিতে লকডাউন চলার সময় ব্যবসা একেবারেই মন্দা। মানুষ একেবারেই সেলুনে আসেন না। এই বেহাল দশা থেকে সেলুনের হাল ফেরাতে কী করা যায় তাই নিয়ে ভাবতে থাকেন অভিনাশ।

 

 আচমকাই মাথায় বুদ্ধি আসে এবং ৪ লক্ষ টাকা খরচ করে বানিয়ে ফেলেন সোনার রেজার। নতুন করে সাজিয়ে তোলেন নিজের সেলুনখানা। স্থানীয় বিধায়ককে দিয়ে ঘটা করে উদ্বোধন করান সেলুনের। মুহূর্তে ছড়িয়ে যায় খবর। 

সোনার রেজারে দাড়ি কাটার সুখ এবং রাজকীয় অনুভুতি নিতে অনেকেই আগ্রহ দেখান। লকডাউনে থমকে পড়া সেলুন ব্যবসার আর্থিক গ্রাফ এখন তরতরিয়ে উপরের দিকে চড়ছে।  প্রতিদিন নতুন নতুন গ্রাহক আসছেন সোনার রেজারে দাড়ি কামাতে। অভিনাশ জানিয়েছেন,  মোট ৮০ গ্রাম সোনা লেগেছে রেজারটি  বানাতে, যার জন্য খরচ করতে হয়েছে ৪ লক্ষ টাকা। তিনি আসলে চাইছিলেন সাধারণ মানুষদের একটু স্পেশাল ফিল করাতে।  তবে এখন কথা হচ্ছে এই সোনার রেজার দাড়ি কাটতে গাটের কড়ি কত খসাতে হবে?  না! তা কিন্তু খুব একটা বেশি নয়। মাত্র ১০০ টাকা খরচে পুণের সেই সেলুনে আপনি রাজকীয় ভাবে কামাতে পারেন নিজের গোঁফ দাড়ি।

জনপ্রিয়

Back To Top