আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ২০২০–র ১৫ জানুয়ারি থেকে আরও বিশুদ্ধ হবে সোনা। কারণ ওই দিন থেকেই যে কোনও সোনার গয়না এবং শিল্পকর্মে হলমার্কিং বাধ্যতামূলক করে দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার।
হলমার্কের চারটি চিহ্ন রয়েছে। প্রথমত, বিআইএস মার্ক। ভারতে ব্যবহৃত সোনা এবং রুপোর গয়নার বিশুদ্ধতার শংসাপত্র দেয় ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড নির্দেশিত বিআইএস মার্ক।
দ্বিতীয়ত ক্যারাট এবং ফাইননেসের শুদ্ধতা। যেমন ২২কে৯১৬ হচ্ছে ২২ ক্যারেটের সমান।
তৃতীয়ত, হলমার্কিং কেন্দ্রের নম্বর বা পরিচয়চিহ্ন।
চতুর্থত, স্বর্ণকারের পরিচয়জ্ঞাপক চিহ্ন। 
এতদিন পর্যন্ত সোনায় হলমার্কিং বাধ্যতামূলক ছিল না। আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি থেকে এক বছরের নোটিস দিয়ে স্বর্ণব্যবসায়ীদের কাছে এই বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে দেবে কেন্দ্র যাতে এই একবছরের মধ্যে তাঁরা তাঁদের মজুত হলমার্কহীন সোনার ভান্ডার খালি করে দিতে পারেন। ২০২১ সালের জানুয়ারির মধ্যে হলমার্কিং–এর ক্ষেত্রে সব স্বর্ণব্যবসায়ীদের নথিভুক্তিকরণ বা রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। সারা বিশ্বে সোনা আমদানির ব্যাপারে শীর্ষস্থানে আছে ভারত। প্রতিবছরই ভারতে ৭০০–৮০০ টন সোনা আমদানি হয় যার বেশিরভাগটাই গয়না বানাতে কাজে লাগে।    ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top