আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ তুতিকোরিনে বাবা–ছেলের হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি প্রথম জানিয়েছিলেন ভিডিও করে। ডিলিট না করলে গ্রেপ্তারের হুমকি সেই আরজে সুচিত্রাকে। 
দক্ষিণী আরজে সুচিত্রা। এক নামেই সকলে চেনে তাঁকে। প্রথম ভিডিও করে গোটা দেশকে জয়রাজ–বেনিক্সের হত্যাকাণ্ডটির বর্ণনা করেছিলেন তিনি। সেই ভিডিওটি চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। হত্যাকারী তামিল পুলিশকর্মীদের সাজা পাওয়ানোর জন্য উত্তাল হয়ে ওঠে দেশ। আর আজ তাঁকেই হত্যা করার হুমকি দিল সিবি–সিআইডি। তিনি টুইট করে জানালেন, ‘সিবি–সিআইডি‌ থেকে ফোন এসেছিল আমার কাছে। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে বলে আমার করা ভিডিওটি ডিলিট করে দিতে বলা হয়েছে। ভিডিওটি নাকি ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে। না করলে আমাকে গ্রেপ্তার করা হবে। আমার আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলে আমি ভিডিওটি ডিলিট করে দিয়েছি। তাঁর মতে, তারা আমাকে গ্রেপ্তার করে নিতেই পারে। সেই ক্ষমতা তাদের আছে। সবাইকে আমার অনুরোধ, এই ঘটনা এবং তদন্তের দিকে নজর রেখে যান। অনেকরকম ফাঁকফোকর তৈরি হচ্ছে গোটা ঘটনায়।’ আরেকটি টুইটে তিনি জানালেন, ‘‌ভিডিও ডিলিট করাটা বড় বিষয় নয়। আমার খটকা এখানে লাগছে, তারা আমায় জানিয়েছে, আমি যা যা বর্ণনা করেছি, ময়নাতদন্তে নাকি সেসব কিছুর প্রমাণ মেলেনি। ময়নাতদন্তের আসল রিপোর্টটা জানা খুব দরকার। সংবাদমাধ্যমের কাছে আমার অনুরোধ, ময়নাতদন্তের আসল রিপোর্টের একটি কপি না পাওয়া পর্যন্ত আপনারা চুপ করবেন না।’
রেডিও জকি এবং গায়িকা সুচিত্রাকে জাতীয় সংবাদসংস্থা ‘‌এনডিটিভি’ জিজ্ঞেস করেছিল, তিনি এই ঘটনার খুঁটিনাটি জানলেন কীভাবে। জয়রাজ ও বেনিক্সের পরিবার যে এফআইআরটি করেছিল, সেটি থেকেই তিনি বিস্তারিত জানতে পেরেছিলেন। 
সোশ্যাল মিডিয়ায় সিবি–সিআইডি একটি বিবৃতি পেশ করে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘‌আরজে সুচিত্রা গোটা ঘটনায় রং চড়িয়েছেন। তিনি তাঁর কল্পনা মিশিয়ে ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। যার কোনও প্রমাণ নেই। এই ভিডিওর জন্য পুলিশের বিরুদ্ধে ঘৃণা তৈরি হচ্ছে মানুষের মনে। তাই তাঁকে ভিডিও ডিলিট করতে বলা হয়েছে।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top