আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আবার এভারেস্টের পথে মৃত তিন ভারতীয় পর্বতারোহী। শুক্রবার নেপাল পর্যটন দপ্তরের অফিসার মীরা আচার্য একথা জানিয়েছেন। তাঁরা হলেন পুনের বাসিন্দা ২৭ বছরের নিহাল আশপাক ভগবান, মুম্বইয়ের বাসিন্দা ৫৪ বছরের অঞ্জলি শরদ কুলকার্নি এবং ওড়িশার বাসিন্দা ৪৯ বছরের কল্পনা দাস। তিনজনই শিখর থেকে নামার সময় মারা যান। মীরা আরও জানিয়েছেন, ১২০ জনেরও বেশি পর্বতারোহী বৃহস্পতিবার পৃথিবীর সর্বোচ্চ শিখরে উঠেছিল। কিন্তু ৮৮৫০ মিটার উচ্চতা থেকে নামার সময় এভারেস্টের ঢালে অতিরিক্ত ভিড়ে আটকে পড়েন তাঁরা। তার ফলে অনেকেই ক্লান্ত, অবসন্ন হয়ে জলাভাব এবং অক্সিজেনের অভাবে ভোগেন। তাতেই মৃত্যু হয় কয়েকজনের।
নিহালের অভিযান সংস্থা ‌‌পিক প্রোমোশন হাইকিং এজেন্সি‌–র কর্মী কেশব পোড়েল জানালেন নামার সময় পর্বতারোহীদের অতিরিক্ত ভিড়ের মাঝে আটকা পড়েন নিহাল। ক্লান্ত, অবসন্ন শরীরে এভাবে আটকে থেকে জলাভাবে ভুগেই তিনি মারা যান। অঞ্জলির অভিযান সংস্থা অরুণ ট্রেকস্‌ অ্যান্ড এক্সপেডিশনস্‌–এর অফিসার লাপকা শেরপা জানালেন, এভারেস্টের সাউথ কোলে ক্যাম্প ফোরে নামার সময় দুর্বলতার কারণে মৃত্যু হয় অঞ্জলির। তবে কল্পনার মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি।
এবছর নেপাল সরকার মোট ৩৭৯ জন পর্বতারোহীকে এভারেস্টে ওঠার অনুমতি দিয়েছে। মার্চ থেকে শুরু হয়েছে শিখর অভিযানের মরশুম। এপর্যন্ত ১৫ জন অভিযাত্রী নিখোঁজ। তাঁদের মধ্যে সাতজন ভারতীয়। গত বৃহস্পতিবার ৮৬০০ মিটারে আর্নস্ট নামে সুইশ এক পর্বতারোহীর দেহ শনাক্ত করেছে সুইৎজারল্যান্ডের অভিযান সংস্থা কবলার অ্যান্ড পার্টনার।
ছবি:‌ দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ

জনপ্রিয়

Back To Top