আজকাল ওয়েবডেস্ক: বড় দুর্ঘটনা হতে পারত, পুলিশ আধিকারিক ঠিক সময়ে ত্রাতা হিসেবে হাজির হলেন। পর্দা দিয়ে ঢাকা অটোতে এক ছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়। সম্ভবত প্ল্যান ছিল খুনেরও। অটোর মধ্যে পায়ের ছাত্রীর নড়াচড়া চোখে পড়ে ডিএসপি-র। তিনি গাড়ি নিয়ে তাড়া করে অটো থামান এবং ছাত্রীটিকে উদ্ধার করেন। গ্রেপ্তার করা হয় দুই দুষ্কৃতীকে। 
এই ঘটনা হরিয়ানার হিসার শহরের। ওই ছাত্রী বাড়ি থেকে কলেজ যাওয়ার উদ্দেশ্যে অটো ধরেন। অটোটি কলেজের দিকে না গিয়ে অন্যত্র যাওয়া শুরু করে। এদিকে চালক ছাড়া অটোতে বসা আর এক ব্যক্তি ছাত্রীটির মুখ চেপে ধরে। অটো যে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল তার এক জায়গায় দাঁড়িয়েছিলেন ডিএসপি ভারতী ডবাস। অটো পর্দা দিয়ে ঢাকা থাকলেও ছাত্রীটির দ্রুত পা নড়াচড়া দেখে সন্দেহ হয়। এরপর তাড়া করে অটো থামিয়ে ছাত্রীকে উদ্ধার করেন ভারতী। 
কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ছাত্রীটি বলে, ভারতী দেবী না আসলে চরম খারাপ কিছু ঘটে যেতে পারত। অটো থেকে বাজেয়াপ্ত হয়েছে একটি চাকু, ফলে খুনের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। দুষ্কৃতীদের আজই আদালতে তোলার কথা।      
 

জনপ্রিয়

Back To Top