আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দিল্লি পুলিসের দুটি ব্যারিকেড বেঁধে রাখার লোহার তারে গলার নলি কেটে মৃত্যু হল ২১ বছরের বাইকচালকের। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোররাতে পশ্চিম দিল্লির নেতাজি সুভাষ প্লেস থানা এলাকায়। অভিষেক নামে ওই তরুণ শাকুরপুর জেজে কলোনির বাসিন্দা। তিনি একটি অনলাইন ক্যাবচালক এবং পার্টটাইম ডিজে হিসেবে কাজ করেন। দিল্লিতে একটি বিয়েবাড়ি থেকে ফেরার পথে ওই দুর্ঘটনা। উত্তরপশ্চিম দিল্লির ডেপুটি পুলিস কমিশনার আসলাম খান বলেছেন, অভিষেকের গলায় গভীর ক্ষত রয়েছে। তাঁর দেহের অটোপসি করা হয় বাবা সাহেব আম্বেডকর হাসপাতালে। রিপোর্ট পেলে জানা যাবে, তাঁকে কেউ খুন করেছে নাকি এটা নিছকই দুর্ঘটনা। প্রাথমিক তদন্তে তাঁর অনুমান, অভিষেক হয় ওই ব্যারিকেডের কাছে তাঁর বাইক পার্ক করতে গিয়েছিলেন, অথবা রাতের অন্ধকারে তার দেখতে না পেয়ে তা পেরতে গিয়েছিলেন। তবে আসলাম খান স্বীকার করেছেন, দিল্লি পুলিস প্রায়ই এভাবে তার দিয়ে ব্যারিকেড বেঁধে রাখে। অভিষেকের মা ঘটনায় দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়ে অভিযোগ করেছেন, পুলিসে যোগ দিতে চেয়েছিলেন তাঁর ছেলে অথচ, পুলিসই তাঁর প্রাণ নিল। অভিষেকের আত্মীয়দের অভিযোগ, দুর্ঘটনার সময় সেখানে পুলিসের কোনও পিসিআর ভ্যান ছিল না যাতে তাঁকে তৎক্ষণাৎ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যেত। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত নেতাজি সুভাষ প্লেস থানার স্টেশন হাউস অফিসারকে জেলা পুলিস লাইনে বদলি করা হয়েছে। একজন এসআই সহ চারজন বিট কনস্টেবলকে সাসপেন্ড করা হয়েছে এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৪ এ (‌অবহেলায় মৃত্যু)‌ ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।   

জনপ্রিয়

Back To Top