আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌মোস্ট ওয়ান্টেড অপরাধী, আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ নাকি আত্মসমর্পণ করতে চায়। তবে আত্মসমর্পণের সময় তার কিছু শর্ত মানতে হবে ভারত সরকারকে। ১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণের মূল চক্রী দাউদ এই ঘটনার পরই দেশ থেকে ফেরার হয়ে যায়। তারপর থেকেই এ দেশের পুলিস–গোয়েন্দা দপ্তর তার সন্ধান পেলেও কিছুতেই আর তাকে হাতের মুঠোয় পাচ্ছে না। তবে দাউদের আত্মসমর্পণের বিষয়টি প্রকাশ্যে এনেছেন আইনজীবী শ্যাম কেসওয়ানি। তিনি নিজেকে ফেরার ডন দাউদের আইনজীবী বলে দাবি করেন। যদিও কেসওয়ানির এই দাবিকে মানতে নারাজ সরকারি আইনজীবী উজ্জ্বল নিকম। তিনি জানান, এটা দাউদের অনেক পুরনো স্টাইল।
শ্যাম কেসওয়ানির আগে বিশিষ্ট আইনজীবী রাম জেটমালানিও এই একই দাবি করেছিলেন। রাম জেটমালানি জানান, দাউদ এ দেশে আত্মসমর্পণের জন্য ফিরতে চায়। কিন্তু দেশের প্রশাসন এ বিষয়ে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না। গত ২৫ বছর ধরে ফেরার জঙ্গি দাউদ প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানে আশ্রয় নিয়েছে। এ কথা এ দেশের গোয়েন্দাদের কাছে অজানা নয়। সরকারি আইনজীবী উজ্জ্বল নিকম জানান, দাউদের কথায় বিশ্বাস করা মুশকিল। অন্যদিকে দাউদের আত্মসমর্পণের বিষয়কে আরও একটু উস্কে দিয়ে মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা সভাপতি রাজ ঠাকরে জানান, দাউদ শুধু ফিরতে চাইছে তা নয়। আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন মোদি সরকারের সঙ্গে মধ্যস্থতাও করতে চায়। 
গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে, দাউদকে বিশ্বের সবচেয়ে কুখ্যাত অপরাধী বলে মনে করা হয়। ২০০৩-এ আমেরিকা তাকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি বলে ঘোষণা করেছে। ইন্টারপোল তার হদিশ করতে চাইছে। ২০১১-তে ফোর্বস দাউদকে বিশ্বের সবচেয়ে কুখ্যাত অপরাধীদের তালিকায় রেখেছে। ১৯৯৩-এর ১২ মার্চ মুম্বইয়ে ১৩ জায়গায় বিস্ফোরণ হয়। এই ঘটনায় সাড়ে তিনশ জন নিহত হন। এই হামলার পিছনে দাউদের হাত ছিল বলে গোয়েন্দারা তদন্তে জানতে পারে। থানে আদালতের বাইরে মঙ্গলবার আইনজীবী কেসওয়ানি জানিয়েছেন, আত্মসমর্পণের ব্যাপারে দাউদ যে শর্তগুলি রেখেছে, তার মধ্যে একটি হল যে তাকে মুম্বইয়ের উচ্চ নিরাপত্তা বেষ্টিত আর্থার রোড জেলে রাখতে হবে।
অন্যদিকে, দাউদের ভাই ধৃত ইকবাল কাসকর মঙ্গলবার থানে আদালতকে জানান যে গ্রেপ্তারের আগে দাউদের সঙ্গে তার ফোনে কথা হয়েছিল। থানে আদালত কাসকরের কাছ থেকে দাউদের নম্বর চাইলে কাসকর জানান যে ফোনে কোনও নম্বর ওঠেনি। কাসকর আদালতকে এও জানান, তার ভাই দাউদ কোথায় রয়েছে সে বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। ইকবাল কাসকরকে থানে আদালত ৯ মার্চ পর্যন্ত পুলিস হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয়। 

 


‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top