আজকাল ওয়েবডেস্ক: করোনা সংক্রমণের জেরে বিপর্যস্ত গোটা দেশ। মারণ ভাইরাস করোনা এবার থাবা বসাচ্ছে ভারতীয় রেলে। দৈনিক প্রায় ১ হাজার জন রেলকর্মী আক্রান্ত হচ্ছেন কোভিডে। যা ক্রমশ চিন্তা বাড়াচ্ছে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষের। এ প্রসঙ্গে রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান সুনীত শর্মা বলেন, ‘মারণ ভাইরাস করোনা কেড়ে নিয়েছে ১,৯৫২ জন রেলকর্মীর প্রাণ। করোনা সংক্রমণের জেরে ভারতীয় রেলের ক্ষতি হয়েছে। আর রেলের মাধ্যমে যাত্রীরা যাওয়া আসা করছেন। পণ্যও রেলের মাধ্যমে একস্থান থেকে আরেক জায়গায় যাচ্ছে। আর জনসমাগমের জেরে ছড়িয়ে পড়ছে করোনা। আর তা থেকেই গড়ে প্রতিদিন আমাদের রেলকর্মীদের মধ্যে ১ হাজারের কাছাকাছি করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে আমরা রেলের নিজস্ব হাসপাতালে অক্সিজেন প্ল্যান্ট তৈরি করেছি। রেলের হাসপাতালেই আমাদের কর্মীদের চিকিৎসা চলছে। রেলের হাসপাতালগুলিতে ৪ হাজার বেড বরাদ্দ হয়েছে করোনা আক্রান্ত রেলকর্মী এবং তাঁদের পরিবারের সদস্যদের জন্য। সেখানেই আপাতত চিকিৎসা চলছে। এর পাশাপাশি আমরা অক্সিজেন সাপোর্ট পৌঁছে দিয়েছি বিভিন্ন রাজ্যে। ১৯ এপ্রিল থেকে বিভিন্ন রাজ্যে ৪৭০০ মেট্রিক টন লিকুইড মেডিক্যাল অক্সিজেন পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। রবিবার ৮৩১ মেট্রিক টন লিকুইড অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়েছে বিভিন্ন রাজ্যে। দেশে যখন অক্সিজেন সংকট চলছে তখন রেলের উদ্যোগে ৭৫টি অক্সিজেন এক্সপ্রেসে করে রাজ্যগুলিতে অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়েছে।’ মারণ ভাইরাস করোনা যে সকল রেলকর্মীর প্রাণ কেড়ে নিয়েছে তাঁদের যাতে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয় সেই বিষয়ে রেল মন্ত্রী পীযূষ গোয়েলকে চিঠি দিয়েছে রেলের ইউনিয়ন। যে ১,৫০০ রেলকর্মী করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন তাঁদের পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হোক। ১ লাখ কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আপাতত রেলের ৬৫ হাজার কর্মী করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে কাজে যোগ দিয়েছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top