আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ঘূর্ণিঝড় ফণীর দাপটে ৫২৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে নবীন পট্টনায়েকের রাজ্যে। এমনই তথ্য পেশ করেছে আবাসন ও নগরোন্নয়ন দপ্তর। মে মাসের ৩ তারিখে ঘূর্ণিঝড় ফণী আছড়ে পড়েছিল ওড়িশা উপকূলে। তাতে লন্ডভন্ড হয়ে যায় গোটা রাজ্য। পুরী–সহ গোটা ওড়িশা মোকাবিলা করার চেষ্টা করেছিল নবীনের প্রশাসন। কিন্তু প্রাকৃতিক দুর্যোগের দাপট থেকে মানুষজনের প্রাণ বাঁচানো গেলেও বাঁচানো যায়নি শহর ও গ্রামের রাস্তাঘাট, বাড়ি–সহ আরও অনেক সম্পত্তিই। 
আবাসন ও নগরোন্নয়ন দপ্তরের প্রধান সচিব জি মাথিভাথানন জানান, পার্ক, খেলার মাঠ, কমিউনিটি সেন্টার, টাউন হল–সহ আরও স্থায়ী কাঠামো ভেঙে পড়েছে। পরিকাঠামো একেবারে জোর ধাক্কা খেয়েছে। শহরের ২০টি জায়গায় জল সরবরাহের ওপর প্রভাব পড়েছে। আহার যোজনার সদর রন্ধনশালা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২৭টি স্থানীয় কার্যালয়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ২১ হাজার রাস্তার আলো ভেঙে পড়েছে। সব মিলিয়ে ৫২৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আর প্রাণহানি হয়েছে ৬৪ জন মানুষের। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top