আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশে টিকাকরণ শুরু হয়েছে। প্রথম ধাপে করোনার টিকা পেয়েছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। এখন পর্যন্ত এক কোটি ২১ লক্ষ জন দেশে করোনার টিকা পেয়েছেন। ১ মার্চ থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাকরণ। এবার টিকা নিতে পারবেন ৬০ বছরের বেশি বয়সিরা। আর অন্য কোনও রোগ থাকলে (‌কোমরবিড)‌ টিকা নিতে পারবেন ৪৫ বছরের বেশি বয়সিরাও। 
বুধবার সন্ধেবেলা এই ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। ১০ হাজার সরকারি কেন্দ্রে টিকা দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে ২০ হাজার বেসরকারি কেন্দ্রেও টিকাকরণ চলবে। সরকারি কেন্দ্রে টিকা নিলে কোনও টাকা দিতে হবে না। তবে বেসরকারি কেন্দ্রে টিকা নিতে হলে টাকা দিতে হবে। সেটা কত, তা অবশ্য এখনও স্থির করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। আর তিন–চার দিনেই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জাভড়েকর। 
কেন্দ্রের আশা, দ্বিতীয় ধাপে ২৭ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। তাঁদের মধ্যে ১০ কোটির বয়স ৬০ বছরের বেশি। দিন কয়েক আগে জানা গেছিল, দ্বিতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী, সাংসদ, বিধায়কদেরও টিকা দেওয়া হবে। যাঁদের বয়স ৫০ বছরের বেশি। আইসিএমআর–এর উপদেষ্টা ডা.‌ সুনীলা গর্গ জানালেন, যাঁদের ডায়বেটিস, ক্যানসার, হাইপারটেনশন, স্ট্রোক, শ্বাসের সমস্যা রয়েছে, তাঁদেরই আগে টিকা দেওয়া হবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top