আজকাল ওয়েবডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাই সবচেয়ে বড় হাতিয়ার বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই ২৫ তারিখ বিয়ের আয়োজন বাতিল করতে হয়েছিল হামিদ আর মেহজাবিনকে। তবে আয়োজন বাতিল হলেও বিয়ে বাতিল করেননি উত্তরপ্রদেশের হরদৌয়ের এই জুটি। বরং ভিডিও কলেই নিকাহ সারলেন হামিদ–মেহজাবিন। প্রযুক্তিগত বিয়ে।
ঠিক কী ঘটল?‌ ১৫ কিলোমিটারের দূরত্ব কাছাকাছি চলে এলে দুটো স্মার্টফোনের মাধ্যমে। করোনা সতর্কতা বজায় রেখে দূরত্ব মিটিয়ে নিলেন এই জুটি। নিমন্ত্রিত কেউই ছিলেন না। ছেলের বাড়ি এবং মেয়ের বাড়ির লোকেরাই একমাত্র সাক্ষী থাকল প্রযুক্তিগত বিয়ের। তবে ভিডিও কলে যোগ দিয়েছিলেন আরও কিছু আত্মীয়। ভিডিও কলেই সবাই দেখতে পেল কনের সাজ। নিজেই মেকআপ করে সামনে আসেন মেহজাবিন। তৈরি ছিলেন দুই বাড়ির সদস্যরাও। আর ভিডিও কলেই নিয়ম রীতি মেনে সারা হল নিকাহ।
বাড়ির সদস্যরাই সবাই মিলে নিজেদের প্রয়োজন মতো একাধিক পদ রান্না করে নেন। বিয়ের পর্ব মেটার পর ভিডিও কল চলাকালীনই দুই বাড়ির সদস্যরা খাওয়া শুরু করেন। বিয়ের পর হামিদের প্রতিক্রিয়া, আসলে করোনা সর্তকতা মেনে এবং এই লকডাউনের সময় বরযাত্রী নিয়ে বিয়ে করতে যাওয়া অসম্ভব ছিল। আবার আয়োজন বন্ধ করলে বিয়ে পিছিয়ে যাবে। তাই সবদিক বজায় রাখতে ভিডিও কলি মাধ্যম হল বিয়ের। তবে সময় কেটে নতুন সময় এলেই সংসার করব।

জনপ্রিয়

Back To Top