আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আদালত কম। বিচারকের সংখ্যা আরও কম। ফলে গোটা দেশে এখনও কয়েক কোটি মামলা বিচারাধীন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শুনানি সময়ে শেষ না হওয়ায় তা মুলতুবি করে নতুন তারিখ জানাতে হয় বিচারকদের। কিন্তু এবার এক অদ্ভুত কারণে মামলা মুলতুবি করল পাঞ্জাব–হরিয়ানার আদালত। আদালতের মেজাজ খারাপ। তাই মামলার শুনানির সময় একথা জানিয়ে মামলা মুলতুবি করার প্রস্তাব দেন এক পক্ষের আইনজীবী।‌ আর আশ্চর্যের বিষয়, বিচারপতিও আইনজীবীর সেই দাবিকে মান্যতা দিয়ে, মামলা মুলতুবি করে দেন। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে।
জানা গিয়েছে, গত ৪ ফেব্রুয়ারি খুনের অভিযুক্ত এক ব্যক্তির পক্ষ থেকে সওয়াল করতে বিচারক রাজীব নারায়ন রায়নার এজলাসে উপস্থিত হয়েছিলেন কে এস সিধু। এদিকে, সকাল থেকেই চারটি মামলা খারিজ করে দিয়েছিলেন বিচারপতি। এরপরই সিধু প্রস্তাব দেন, আজ বোধহয় আদালতের মেজাজ খারাপ, তাই এই মামলার শুনানি মুলতুবি করে দেওয়া হোক। আর সিধুর সেই প্রস্তাব মেনেও নেন বিচারক। তবে জানান, আগের চারটি মামলা খারিজ করার জন্য নয়, অভিযুক্তের আইনজীবীর প্রস্তাব মেনেই আদালত এই মামলার শুনানি মুলতুবি করছে।
এরপর পরবর্তী শুনানির জন্য ২০ ফেব্রুয়ারির দিন ধার্য করলেও, গত বৃহস্পতিবারও মামলা মুলতুবি করতে বাধ্য হন বিচারক। কারণ এদিনের শুনানিতে মামলাসংক্রান্ত কাগজপত্র জমা দেওয়ার জন্য আরও কয়েকদিনের সময় চান সিধু। শেষপর্যন্ত আদালত আগামী ৩ মার্চ এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছে।

জনপ্রিয়

Back To Top