আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গোটা স্কুল চত্বরে একটি মাত্র শৌচাগার। সেটাও ‌আবার পাশের অন্য একটি স্কুলের ছাত্র থেকে শুরু করে স্কুলে ক্যাম্প করা জওয়ান– সবাই ব্যবহার করে। ফলে বাধ্য হয়ে ছাত্রীদেরও একই শৌচাগার ব্যবহার করতে হয়। আর তাই এই কারণে স্কুলে যাওয়াই বন্ধ করে দিয়েছে বিহারের রাজধানী পাটনার মইন–উল–হক স্টেডিয়ামের কাছে অবস্থিত বাপু স্মার্ক গার্লস স্কুলের ছাত্রীরা। ১৯৫০ সালে এই স্কুলটি স্থাপন করেছিলেন প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রীর বোন সুন্দরা দেবী। ২০১২ সালে বাজার সমিতি রোডের বর্তমান ঠিকানায় সেটি স্থানান্তরিত হয়। পাশেই রয়েছে সরকারি বয়েজ স্কুল। সব মিলিয়ে প্রায় ১০০০ জন পড়ুয়া সেখানে পড়াশোনা করে। এদিকে, স্কুলের প্রিন্সিপাল অবশ্য জানান, স্কুলে দু’‌টি শৌচাগার থাকলেও গত তিন মাস ধরে এই স্কুলেই আবার সেনার ক্যাম্প চলছে। তাঁরাই নিচের শৌচাগারটি ব্যবহার করে থাকেন। আর তাই উপরের শৌচাগারটি ব্যবহার করে ছাত্র–ছাত্রীরা। ফলে ছেলেমেয়ে নির্বিশেষে একই শৌচাগার ব্যবহার করতে বাধ্য হয়। ইতিমধ্যে স্কুলের তরফ থেকে এবং রাজ্য মহিলা কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব স্কুল থেকে জওয়ানদের ক্যাম্প সরানোর চেষ্টা চলছে। না হলে ছাত্রীরা ওই শৌচাগারটি ব্যবহার করতে পারছেন না।

জনপ্রিয়

Back To Top