Gujarat CM: মাথায় মোদি–শাহর হাত!‌ গুজরাটের নতুন মুখ্যমন্ত্রী পতিদার নেতা ভূপেন্দ্র প্যাটেল

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জল্পনার অবসান। মোদি–শাহর রাজ্যে নতুন মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন পতিদার নেতা ভূপেন্দ্র প্যাটেল। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন প্যাটেলের অসম্ভব ঘনিষ্ঠ এবং স্নেহভাজন তিনি। সূত্রের খবর, প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও নিজেদের রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসানোর জন্য প্যাটেলকেই বেছে নিয়েছেন। 
আনন্দীবেনের ছেড়ে যাওয়া ঘাটলোদিয়া আসন থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছেন প্যাটেল। তার আগে আমেদাবাদ মিউনিসিপাল কর্পোরেশন এবং আমেদাবাদ আর্বান ডেভলপমেন্ট অথরিটি–র সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। রবিবার দফায় দফায় পরিষদীয় দলের বৈঠক হয়। সেখান থেকেই শেষ পর্যন্ত এই পতিদার নেতার নাম উঠে এসেছে। 
গুজরাটে আর ১৫ মাস পর ভোট। তার আগে গতকাল, শনিবার আচমকাই মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন  বিজয় রুপানি। সূত্রের খবর, তাঁর ওপর মোটেও তুষ্ট ছিলেন না মোদি–শাহ সহ শীর্ষ নেতৃত্ব। অন্যতম কারণ করোনা। দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় গুজরাটে লাগামছাড়া ছিল সংক্রমণ। রুপানি পরিস্থিতি যেমন করে মোকাবিলা করেছিলেন, তা পছন্দ হয়নি মোদি–শাহর। সেজন্যই সরতে হল তাঁকে। তাছাড়া বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আসন্ন নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে পতিদার ভোটব্যাঙ্কও শক্ত করছে চাইছে বিজেপি–র শীর্ষ নেতৃত্ব। সে কারণেই মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন ভূপেন্দ্র।
চলতি বছর এই নিয়ে বিজেপি শাসিত চতপর্থ রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী বদল হল। জুলাইতে কর্নাটকে বিএস ইয়েদুরাপ্পাকে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরানো হয়েছে। উত্তরাখণ্ডে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরানো হয় ত্রিবেন্দ্র রাওয়াতকে। সেই পদে বসেন তীরথ সিং রাওয়াত। চার মাস পর তিনিও সরে যান।
২০১৭ সালের শেষে গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচন হয়। তার ১৬ মাস আগে ২০১৬ সালে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন প্যাটেলকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী করা হয় বিজয় রুপানিকে। এবার তাঁকেও সরানো হল