‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ফের রামভক্তদের অত্যাচারের শিকার হলেন এক প্রৌঢ়। মারধর করে ফেলে রেখে চলে গেল দুই ভক্ত। কী অপরাধ প্রৌঢ়ের? তিনি ‘‌জয় শ্রী রাম’‌ ও ‘‌মোদি জিন্দাবাদ’ স্লোগান দিতে রাজি হননি। সেই কারণে এবং তাঁর ধর্মের জন্য তাঁকে এমনকি নিজের দেশ ছেড়ে পাকিস্তান চলে যাওয়ার কথাও বলা হল। 
এই ধরণের ঘটনা নতুন নয়। আর এই অত্যাচার কেবলমাত্র মুসলিম ধর্মাবলম্বী বলেও নয়। দীর্ঘদিন ধরে গোটা দেশ থেকে ‌এরকম ঘটনার খবর পাওয়া যাচ্ছে। ‌‘‌জয় শ্রী রাম’‌ ও ‘‌মোদি জিন্দাবাদ’ এধরণের স্লোগান দিতে রাজি না হলেই ব্যক্তিকে ‘দেশদ্রোহী‌’ আখ্যা দেওয়া হচ্ছে। সঙ্গে মারধরও করা হচ্ছে। 
এবারে শিকার হলেন রাজস্থানের শিকর এলাকার প্রৌঢ় অটোরিক্সা চালক গাফর আহমেদ কাচ্ছাওয়া। তিনি এই ঘটনার পরেই থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁর এফআইআর–এ লেখা হয়, ‘‌শুক্রবার ভোর চারটে নাগাদ পাশের একটি গ্রামে যাত্রী নামিয়ে ফিরছিলাম। একটা গাড়ি আমায় ওভারটেক করে সামনে দাঁড়াল। দু’‌জন লোক নেমে এল গাড়ি থেকে। আমার কাছ থেকে তামাক চাইল। আমি দিলাম। কিন্তু নিল না। তারপর আমায় ‘‌জয় শ্রী রাম’‌ ও ‘‌মোদি জিন্দাবাদ’ স্লোগান দেওয়ার হুমকি দিল। আমি দিইনি স্লোগান। তাতেই আমাকে লাঠি দিয়ে মারতে শুরু করে। অনেকক্ষণ ধরে এটা চলতে থাকল। তারপর আমাকে ওভাবেই ফেলে রেখে আমার ঘড়ি, টাকা পয়সা নিয়ে ভেগে গেল। আমার চোখ ফুলে গিয়েছিল। দাঁত ভেঙে গিয়েছিল। সারা মুখে ব্যথা হচ্ছিল।’ 
শিকরের পুলিশ আধিকারিক পুষ্পেন্দ্র‌ সিং জানালেন, ‘‌শুক্রবার অভিযোগ দায়ের হওয়ার ছ’‌ঘণ্টার মধ্যেই আমরা দুই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছি। প্রাথমিক তদন্ত করার পর জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত দু’‌জনই মদ্যপ অবস্থায় ছিল। তাদের একজনের নাম শম্ভু দয়াল জাট (‌৩৫) এবং রাজেন্দ্র জাট (‌৩০)।‌‌’

জনপ্রিয়

Back To Top