আজকাল ওয়েবডেস্ক: মেডিকে‌ল পরীক্ষায় টুকলি করার অনুমতি দেওয়া হোক। তামিলনাড়ুর বিরোধী দল ডিএমকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মেডিকেলের প্রবেশিকা পরীক্ষায় যদি পাস করতে হয় তবে পড়ুয়াদের টুকলি করার অনুমতি দেওয়া হোক। ডিএমকের পক্ষ থেকে প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী কেএন নেহেরু বিক্ষোভরত একদল পড়ুয়ার সামনে এ ধরনের মন্তব্য করায় বেশ অস্বস্তিতে পড়েছে দল। মেডিকেলের প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়ে এ রাজ্যের পড়ু্য়াদের কিছুটা হলেও আশার আলো দেখিয়েছিল তামিল সরকার।
তিরুচিরাপল্লীর ডিএমকের এক বিধায়ক বলেন, ‘‌কতদিন আর তামিলরা সৎ থাকবেন? ‌বিহার, মধ্যপ্রদেশ সহ বেশ কিছু রাজ্যে প্রকাশ্যেই টুকলি চলে। কেন? ‌এ রাজ্যেও এই একই নিয়ম করা হোক।’‌ সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশে এক ছাত্রকে বোর্ড পরীক্ষায় সাহায্য করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েন এক শিক্ষক। কেন্দ্র সরকারই মেডিকেল পরীক্ষার জন্য এই ‘‌নিট’‌ পরীক্ষা নেয়। এ বছর এই নিট হওয়ার কথা আছে ৭ মে এবং কেন্দ্র থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সিলেবাসে কোনও পরিবর্তন হবে না। অন্যদিকে, তামিলনাড়ুর গ্রামের দিকের পড়ুয়াদের কাছে অস্বচ্ছন্দের জায়গা মেডিকেলের প্রবেশিকা পরীক্ষা। কারণ তাঁরা মনে করছেন, এই পরীক্ষায় তাঁরা হয়ত উত্তীর্ণ হতে পারবেন না। দ্বাদশ শ্রেণির ফলাফলের ওপরই এই প্রবেশিকা পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়। গ্রামের দিকের অনেক পড়ুয়ারই দ্বাদশ শ্রেণির ফলাফল ভাল হয়েছে, কিন্তু তা সত্ত্বেও তাঁরা মেডিকেলে বসতে চাইছে না। কারণ শহরের মত প্রাইভেট টিউশন পড়ানোর কেউ নেই সেখানে। 

‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top