আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নিজে চিকিৎসক হয়েও ভুল করে প্রাণ দিয়ে তার মাশুল দিলেন এক চিকিৎসক। ঘটনাটি ঘটেছে অসমের গুয়াহাটিতে গত শনিবার। উৎপলজিৎ বর্মন নামে ৪৪ বছরের গুয়াহাটির ওই চিকিৎসক ম্যালেরিয়া রোধের ওষুধ হাইড্রোজাইক্লোরোকুইন খেয়েছিলেন কোভিড–১৯–এর জন্য আগাম সতর্কতামূলক ওষুধ হিসেবে। আইসিএমআর–এর নির্দেশিকা অনুযায়ী, কোভিড–১৯–এ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয় ওই ওষুধ। কীভাবে তা ব্যবহার করতে হবে সেজন্য চিকিৎসক, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের নির্দেশও দিয়েছে আইসিএমআর এবং সঙ্গে এটাও কড়াভাবে বলেছে যে কেউ যেন নিজে থেকে হাইড্রোজাইক্লোরোকুইন না নেন কোভিড–১৯ রুখতে। উৎপলজিৎ শনিবার ওই ওষুধ নিজে থেকেই নেন এবং তারপরই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। যদিও ওই ওষুধই তাঁর হৃদরোগের কারণ কিনা সেব্যাপারে এখনও নিশ্চিত নন চিকিৎসকরা কিন্তু সূত্রের খবর, উৎপলজিৎ হোয়াটস্‌অ্যাপ বার্তায় তাঁর সহকর্মীদের লেখেন, ওই ওষুধ খাওয়ার পরই তাঁর অস্বস্তি হতে শুরু করেছিল শরীরে। যেহেতু অসমে এখনও কোনও কোভিড–১৯ রোগী ধরা পড়েনি সেহেতু উৎপলজিৎ করোনা মোকাবিলার এই যুদ্ধে এখনও সামিল ছিলেন না। চীনে হাইড্রোজাইক্লোরোকুইন এবং ক্লোরোকুইন ফসফেট দিয়েই কোভিড–১৯–এ আক্রান্তদের চিকিৎসা চলেছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top