AIIMS Doctor Arrested:‌ ব্যবসা করতে নেমে দিল্লি এইমসের চিকিৎসকের হাতে প্রতারিত অপর চিকিৎসক, পুলিশের জালে অভিযুক্ত

 আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এক চিকিৎসকের হাতে প্রতারিত অপর এক চিকিৎসক।

দিল্লি এইমস থেকে পাশ করা চিকিৎসক চেরিয়ান ও তাঁর বোন মীনাক্ষি সিংকে ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশের আর্থিক দমন শাখা। প্রায় ১৬ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে তাঁদের বিরুদ্ধে। 
বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা চেরিয়ান দিল্লি এইমস থেকে এমবিসিএস করেছেন। তাঁর বোন মীনাক্ষি ইঞ্জিনিয়ারিং ও এমবিএ পাশ করেছেন আইআইএম থেকে। তামিলনাড়ুর দিন্ডিগুল এলাকার একটি রিসর্ট থেকে গ্রেপ্তার করা হয় দু’‌জনকে। পুলিশ জানিয়েছে, স্বাস্থ্য পরিষেবায় অ্যাপ নির্ভর ব্যবসা শুরু করতে বন্ধু চিকিৎসক গন্ধর্ব গোয়েলের সঙ্গে হাত মেলান চেরিয়ান ও তাঁর বোন। কিন্তু বিনিয়োগ যখনই বাড়তে শুরু করেছে, তখনই জাল নথির সাহায্যে গন্ধর্বকে সংস্থা থেকে বার করে দেওয়া হয়। নয়ডার বাসিন্দা গন্ধর্ব এরপর পুলিশের দ্বারস্থ হন। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে ‘সিনামসিকা টেকনোলজিস প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে দিল্লির জাসোলায় যে সংস্থা রয়েছে, তার ডিরেক্টর ও শেয়ারহোল্ডার ছিলেন অভিযোগকারী। তাঁকে প্ররোচিত করে ওই সংস্থার ডিরেক্টর ও শেয়ারহোল্ডার হন অভিযুক্ত চেরিয়ান ও তাঁর বোন। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে ওই সংস্থা লাভজনক হয়। আমেরিকায় আরও একটি সংস্থাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ভারতেরও একটি সহায়ক সংস্থাকে মূল সংস্থার সঙ্গে মিলিয়ে ফেলা হয়। গন্ধর্ব গোয়েলের সই জাল করে তাঁর শেয়ার অধিগ্রহণ করে নেন বলে চেরিয়ান ও তাঁর বোনের বিরুদ্ধে অভিযোগ। আর তার ফলেই ১৬ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি চিকিৎসক গন্ধর্বের। শেয়ারের সমস্ত চুক্তিপত্র সহ একাধিক নথি বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। একাধিক ধারায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন:‌ প্রথম একাদশে পন্থ না কার্তিক?‌ কাকে পছন্দ পন্টিংয়ের, জানুন

আকর্ষণীয়খবর