আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জানলার গ্রিলে অন্তর্বাস ঝুলিয়ে ভিতরে ঢুকেছিল চুরি করতে। যাতে মানুষ ভাবে বাড়িতে কেউ আছে এবং তারই কারও অন্তর্বাস শুকোচ্ছে গ্রিলে। কিন্তু অতি চালাক চোরের গলায় দড়ি পড়ল। বুকের পাঁজরের হাড় ভেঙে পুলিসের হাতে ধরা পড়ল চোর।
ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে কেরলের পাঠানামিট্টা জেলার আদুর শহরের মাঙ্গাট্টু এলাকায়। গৃহের বাসিন্দাদের অনুপস্থিতির সুযোগে সেখানে শনিবার রাতে চুরি করতে ঢুকেছিল পোঠানকোড়ের বাসিন্দা, ৪৬ বছরের বিজু সেবাস্টিন। পোশাক ছাড়াও বর্ষাতি পরে ছিল বিজু। ওই বাড়ির সামনে এসে প্রথমেই পোশাক এবং বর্ষাতি খুলে ফেলে মাটিতে ছড়িয়ে রাখে সে। তারপর অন্তর্বাসটিও খুলে জানালার গ্রিলে মেলে দেয়। তারপর পিছন দিক দিয়ে ঢোকার উদ্দেশ্যে বাড়ির ছাদে চড়ে যায় বিজু।
ওই বাড়ির বাসিন্দারা তাঁদের এক আত্মীয় দম্পতিকে ফাঁকা বাড়ি দেখাশোনার দায়িত্ব দিয়ে গিয়েছিলেন। সেই মতো শনিবার রাত ৯.‌৩০ মিনিট নাগাদ দম্পতি বাড়ির সামনে এসে জানালার গ্রিলে একটি অন্তর্বাস ঝুলতে দেখেন। তাঁরা বুঝতে পারেন, বাড়িতে কেউ ঢুকেছে। তাঁদের সন্দেহ গাঢ় হয় যখন তাঁরা উঠোন চত্বরে অন্য পোশাক ছড়ানো দেখেন। তৎক্ষণাৎ প্রতিবেশীদের এব্যাপারে জানান ওই দম্পতি। সবাই বাড়িটি ঘিরে ফেলে বুঝতে পারেন ছাদে কেউ রয়েছে। খবর পেয়ে পৌঁছয় আদুর থানার পুলিস। তার উপস্থিতি মানুষজন টের পেয়ে গিয়েছে বুঝতে পেরে এবং পুলিস দেখে প্রাণভয়ে ছাদ থেকে লাফ দেয় বিজু। কিন্তু উঁচু থেকে লাফ দেওয়ায় তার পাঁজরের হাড় ভেঙে যায়। পুলিস বিজুকে প্রথমে আদুর সরকার হাসপাতাল এবং পরে তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় আদুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। মাঙ্গাট্টু এবং লাগোয়া অঞ্চলের সাম্প্রতিক চুরিগুলির সঙ্গে বিজু সেবাস্টিনের কোনও যোগ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে আদুর থানার পুলিস।
ছবি:‌ মাতৃভূমি

জনপ্রিয়

Back To Top