আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌দিল্লিতে সাম্প্রদায়িক হানাহানির ঘটনা প্রাণ কেড়েছে প্রতিবেশীর। কেউ গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। কেউ কেউ মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছেন। এমন সময়ে দাঁড়িয়েও আহতদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ওষুধ দিয়ে আসছেন চাঁদবাগের রাইসুল ইসলাম। চাঁদবাদে একটি ওষুধের দোকান আছে তাঁর। উত্তর–পূর্ব দিল্লির একাধিক অঞ্চল এখন থমথমে। ভয়ে কেউই বাইরে বেরতে পারছেন না। রাজধানী এখন মৃত্যুপুরী। বিগত দিনের হিংসার ঘটনায় দিল্লিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫ ‌(‌‌শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী)। সাম্প্রদায়িক হানাহানির ঘটনায় হিন্দু–মুসলিম, দুই ধর্মের মানুষেরাই আক্রান্ত। মৃত। পরিস্থিতি যখন একটু একটু করে শোধরাচ্ছে, তখন আর কোনও ভেদাভেদ চাইছেন না রাইসুল। হিন্দু হোক বা মুসলিম, প্রয়োজন দেখলেই তাঁদের হাতে ওষুধ তুলে দিচ্ছেন তিনি। শান্তির বার্তা দিচ্ছেন।
সংবাদমাধ্যমে তিনি জানিয়েছেন, ‘‌পরিস্থিতি এখন অনেকটাই সুস্থ। প্রয়োজন দেখলেই তাঁদের হাতে ওষুধ তুলে দিচ্ছি আমি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে হিন্দু–মুসলিম, দুই ধর্মের মানুষই এগিয়ে আসছেন। শান্তির বার্তা দিচ্ছেন।’‌‌‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top