Death: আসাম-মেঘালয় সীমান্তে চোরাকারবারিদের গুলি, নিহত ৬

আজকাল ওয়েবডেস্ক: আসাম মেঘালয় সীমান্তে চোরাকারবারিদের গুলিতে নিহত হয়েছেন এক বনরক্ষীসহ ছজন।

আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন সাধারণ মানুষ। মঙ্গলবার সকালে মেঘালয়ের একটি গ্রামের কাছে কাঠ পাচারের চেষ্টার সময় এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার জেরে শিলংয়ে মঙ্গলবার রাতে উত্তেজিত জনতা আসামের নম্বরের একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। দমকলকর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে গাড়িটি। হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। সীমান্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় মঙ্গলবার সকাল থেকে মেঘালয়ের সাতটি জেলায় মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা স্থগিত রাখা হয়েছে। গুলিবর্ষণের ঘটনায় মেঘালয়ের পাঁচ বাসিন্দাসহ আসামের এক বনরক্ষী নিহত হয়েছেন। পুলিশ সূত্রে খবর, স্থানীয় সময় সকাল ৭টার দিকে আসাম বন বিভাগের একটি দল চোরাই কাঠ বোঝাই একটি ট্রাক আটকানোর চেষ্টা করে। কিন্তু ট্রাকটি না থেমে দ্রুত গতিতে এগিয়ে গেলে পুলিশ তাদের পেছনে ধাওয়া করে আন্তঃরাজ্য সীমান্ত অতিক্রম করে মেঘালয়ে প্রবেশ করে। মেঘালয়ের মুকরোহ গ্রামের কাছে ট্রাকটির একটি চাকা লিক করে দেওয়ার পরে ট্রাকটিকে থামানো সম্ভব হয়।

কিন্তু স্থানীয় গ্রামবাসীরা ঘটনাটিকে অনুপ্রবেশ হিসেবে ধরে নিয়ে আসাম পুলিশ ও বনরক্ষীদের ঘেরাও করে। ট্রাকসহ তিনজনকে আটক করে ফেরার সময় গুলি ছোঁড়া হয়। মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা ঘটনাকে অমানবিক বলে অভিহিত করেছেন। তিনি দাবি করেছেন, আসাম পুলিশ বিনা উস্কানিতে গুলি চালিয়েছে। জানা গিয়েছে, ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে পাঁচজন মেঘালয়ের বাসিন্দা বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন। নিহত অপর ব্যক্তি আসাম বন বিভাগের একজন বনরক্ষী।

আকর্ষণীয়খবর