আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শুধু কোভিড নয়, এখন চিন্তা বাড়িয়েছে কালো ছত্রাকের রোগ বা মিউকরমাইকোসিস। ঘুম উড়েছে চিকিৎসকদের। বেশিরভাগে কোভিড রোগীর মৃত্যুর কারণ হচ্ছে এই রোগ। দুই সংক্রমণের যখন ডুয়েল চলছে, তখনই কিছুটা হলেও স্বস্তি দিল দেশের দৈনিক কোভিড সংক্রমণ। গত একদিনে দেশে নতুন করে সংক্রামিত ৩ লক্ষ ২৯ হাজার ৯৪২ জন। প্রায় দু’‌ সপ্তাহ পর দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে তিন লাখের কম হল।
তবে দেশের মোট আক্রান্তের সংখ্যা মোটেও স্বস্তিদায়ক নয়। ২ কোটি ২৯ লক্ষ ৯২ হাজার ৫১২ জন এখন পর্যন্ত কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যুর হার কিন্তু সেভাবে কমেনি। কোভিডে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছে ৩ হাজার ৮৭৬ জন। এখন পর্যন্ত কোভিডে মৃত্যু হয়েছে ২ লক্ষ ৪৯ হাজার ৯৯২ জনের। 
দেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩৭ লাখেরও বেশি। তবে আগের দিনের তুলনায় ৩০ হাজার কমেছে। বিপুল সংখ্যক সক্রিয় রোগীর কারণেই হাহাকার চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে। হাসপাতালে শয্যা নেই। অক্সিজেন নেই। ওষুধ নেই। সংক্রমণের নিরিখে দেশে শীর্ষে এখনও মহারাষ্ট্র। গত এক দিনে সেখানে নতুন করে সংক্রামিত ৫১ লক্ষ ৩৮ হাজারের বেশি। তবে মুম্বইতে দৈনিক আক্রান্ত অনেকটাই কমেছে। ২ মাস পর তা নেমেছে ২ হাজারেরও নীচে। গত ২৪ ঘণ্টায় মুম্বইতে নতুন করে আক্রান্ত ১,৭৯৪ জন।
মহারাষ্ট্রের পরেই সংক্রমণের নিরিখে রয়েছে কর্নাটক, কেরল, উত্তরপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, দিল্লি। কর্নাটকে গত এক দিনে নতুন করে আক্রান্ত ৩৯ হাজার ৩০৫ জন। বেঙ্গালুরুতেই আক্রান্ত ১৬ হাজার ৭৪৭ জন। যদিও রবিবারের থেকে চার হাজার কম। গত একদিনে কর্নাটকে করোনায় মারা গিয়েছেন ৫৯৬ জন।
উল্লেখযোগ্যভাবে সংক্রমণ কমেছে দিল্লিতেও। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে নতুন করে আক্রান্ত ১২ হাজার ৬৫১ জন। সংক্রমণের হার ১৯.‌১০ শতাংশ। ১৬ এপ্রিলের পর কমল এতটা সংক্রমণের হার

জনপ্রিয়

Back To Top