আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নারীবিদ্বেষী মন্তব্যের জন্য তীব্র সমালোচনার শিকার হলেন বিজেপির অর্থনীতি বিষয়ক মুখপাত্র গোপাল কৃষ্ণ আগরওয়াল। অভিনেতা স্বরা ভাস্করও তাঁকে এক হাত নিলেন টুইটারে।
মঙ্গলবার টুইটার ব্যবহারকারী শুনালি খুল্লার শ্রফ একটি পোস্ট করেন। দু’‌টি কুকুরের ছবি। ওপরে লেখা, ‘‌গত জন্মে এই দু’‌টি কুকুর মহিলা ছিল। তাঁদের এই অবস্থা হয়েছে কারণ, মাসিক চলাকালীন তাঁরা তাঁদের স্বামীদের জন্য রান্না করেছেন।’‌ এই পোস্টটির পাল্টা পোস্টে গোপাল কৃষ্ণ আগরওয়াল লেখেন, ‘‌এর মধ্যে আপনি কোনটা, সেটা বলুন।’‌ তাঁর এই নারীবিদ্বেষী মন্তব্যের পরেই সমালোচনার ঝড় বয়ে যায় টুইটারে। অভিনেতা স্বরা ভাস্কর লাখেন, ‘‌বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র খোলাখুলিভাবে একজন মহিলাকে গালাগাল দিচ্ছেন। আপানার লজ্জা পাওয়া উচিত আগরওয়ালজী। যেই ভগবানের নামে আপনার মা–বাবা আপনার নাম রেখেছেন, তাঁর সম্মান তো করুন।’‌ স্বরার পোস্টের উত্তরে গোপাল কৃষ্ণ আগরওয়াল লেখেন, ‘ওরকম একটি অদ্ভুত পোস্টের উত্তরে আমি ওই পোস্টটি করেছি। পোস্টটিতে হিন্দু ধর্মের অবমাননা করা হয়েছে। আমি একজন গর্বিত হিন্দু।’‌ শুনালি খুল্লার শ্রফ নিজে এবং আরও নেটিজেনরা গোপাল কৃষ্ণ আগরওয়ালের বক্তব্যের বিরুদ্ধে যুক্তি দিয়ে বিভিন্ন পোস্ট দেন। ‌
এই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু হল গুজরাটের স্বামীনারায়ণ মন্দিরের স্বামী ক্রুষ্ণাস্বরূপ দাসের একটি ভাষণ। সেখানে তিনি বলেছিলেন, ‘‌মাসিক চলাকালীন কোনও মহিলা যদি রান্না করে তাঁদের স্বামীকে খাওয়ান, তাহলে পরজন্মে মহিলা কুকুর হয়ে যাবেন। এবং যেই স্বামী সেই খাবার খাচ্ছেন, তিনি মোষ হয়ে জন্মাবেন।’ এই স্বঘোষিত ধর্ম‌গুরুর তত্ত্বাবধানে থাকা একটি মন্দির পরিচালিত কলেজেই কিছুদিন আগে ৬০ জনের বেশি ছাত্রীর অন্তর্বাস খুলিয়ে দেখা হয়েছে তাঁদের মাসিক চলছে কিনা। হোস্টেলের নিয়ম অনুযায়ী, মাসিক চললে তাঁরা সকলের সঙ্গে বসে খাবার খেতে পারবেন না।  ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top