আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌ফেসবুক আধিকারিক অজিত মোহনের বিরুদ্ধে এখনই কোনও ব্যবস্থা নয়। দিল্লি বিধানসভার শান্তি ও সম্প্রীতি কমিটিকে নির্দেশ দিল শীর্ষ আদালত। ফেব্রুয়ারির দিল্লির দাঙ্গা সংক্রান্ত ইস্যুতে ফেসবুক ইন্ডিয়ার ওই আধিকারিকের উদ্দেশে চূড়ান্ত সমন পাঠিয়েছিল দিল্লি বিধানসভা। সেই সমনের বিরুদ্ধেই শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল অজিত মোহন। 
ফেসবুক ইন্ডিয়ার মূ্খ্য আধিকারিকের পক্ষে আইনজীবী হরিশ সালভে সুপ্রিম কোর্টকে জানান, ‘দিল্লি বিধানসভা কমিটির সমনে মৌলিক অধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে। অজিত মোহন কোনও সরকারি কর্মচারী নন। মার্কিন কোম্পানিতে আধিকারিক তিনি।’ অন্যদিকে দিল্লির বিধানসভা কমিটির পক্ষে আইনজীবী অভিষেক মনুসিংভি শীর্ষ আদালতকে বলেন, ‘‌ফেসবুকের বিরুদ্ধে বড় কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার ইচ্ছে নেই বিধানসভার শান্তি কমিটির।’‌ তবে তদন্তের অধিকার অবশ্যই রয়েছে, সর্বোচ্চ ন্যায়ালয়কে জানান তিনি। 
ফেসবুক ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোদ, দিল্লি দাঙ্গার ঘটনায় হিংসা–বিদ্বেষ ছড়াতে পারে, এমন পোস্ট বা কনটেন্ট সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে নেয়নি ফেসবুক। গত ১৫ সেপ্টেম্বর এই ইস্যুতেই দিল্লি বিধানসভার কমিটিতে অজিত মোহনকে হাজিরা দিতে বলা হয়েছিল। সমনে সাড়া দেননি ফেসবুক আধিকারিক। সমন প্রত্যাহারের দাবি তুলেছিলেন তিনি। তারপরই দ্বিতীয়বার চূড়ান্ত সমন পাঠায় শান্তি ও সম্প্রীতি কমিটি।‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top