আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দুধের মধ্যেও বিষ রয়েছে!‌ এমনই ভয়ানক তথ্য উঠে এসেছে। পাঞ্জাব পশু কল্যাণ বোর্ডের সদস্য মোহন সিং আলুওয়ালিয়া জানিয়েছেন, দেশে প্রতিদিন যে পরিমাণ দুধ উৎপাদন হয় এবং দুগ্ধজাত দ্রব্য তৈরি হয়, তার ৬৮.‌৭ শতাংশই ভেজাল। ফুড সেফটি ও স্ট্যান্ডার্ড অথরিটির নির্দেশ সঠিকভাবে না পালন করাতেই এই বিপদ ঘনিয়েছে। 
মোহন সিং আলুওয়ালিয়া বলেছেন, ‘‌৩১ মার্চ ২০১৮–র হিসেব অনুযায়ী প্রতিদিন দেশে প্রায় ১৪ কোটি লিটার দুধ উৎপাদন হয়। সমীক্ষায় দেখা গেছে পরিবার পিছু প্রতিদিন গড়ে ৪৮০ গ্রাম দুধ ও দুগ্ধজাত দ্রব্য ব্যবহৃত হয়।’‌ তবে দুধে ভেজালের পরিমাণ দক্ষিণের রাজ্য থেকে উত্তরেই বেশি। জানা গেছে দুধ পরিষ্কার করার সময়ই নানা জিনিস মেশানো হয় দুধে। যা মানুষের স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। 
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও এই বিষয়ে উদ্বিগ্ন। দুধে ভেজাল আটকাতে সংস্থার তরফে ভারত সরকারকে উপদেশও দেওয়া হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, দুধে ভেজাল যদি আটকানো না যায়, তাহলে ২০২৫ সালের মধ্যে ভারতবর্ষের অন্তত ৮৭ শতাংশ মানুষ ক্যান্সারের মতো মারণ ব্যাধিতে আক্রান্ত হতে পারেন। সদ্যোজ্যাত শিশুদের প্রতিদিন দুধের প্রয়োজন হয়। গর্ভবতী মহিলাদেরও দুধ প্রয়োজন নিয়মিত। অসুস্থরাও দুধ পান করেন দ্রুত সুস্থ হওয়ার তাগিদে। কিন্তু আসল কথা হল, সুস্থ হতে গিয়ে তাঁরা আরও অসুস্থ হয়ে যাচ্ছেন না তো?‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top