Gujarat Riots:‌ প্রমাণের অভাব, গুজরাট হিংসা মামলায় ২২ জনকে মুক্তি দিল নিম্ন আদালত 

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ উপযুক্ত প্রমাণের অভাব।

গুজরাট হিংসা মামলায় অভিযুক্ত ২২ জনকে মুক্তি দিল গুজরাটের পঞ্চমহলের হালোল শহরের আদালত। ২০০২ সালে গোধরায় হিংসার ঘটনায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ১৭ জনকে খুন করার অভিযোগ উঠেছিল। এমনকী প্রমাণ লোপাটের চেষ্টায় মৃতদেহগুলি পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগও ওঠে। আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, ২০০২ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি দুই শিশু–সহ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ১৭ জনকে খুন করা হয়েছিল। প্রমাণ লোপাটের জন্য তাদের দেহ পুড়িয়ে দেওয়া হয়। এই ঘটনায় ২২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। কিন্তু অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত তথ্য প্রমাণ না থাকায়, মঙ্গলবার সকল অভিযুক্তদেরই মুক্তি দেওয়া হয়। আদালতের বিচারপতি হর্ষ ত্রিবেদী ২২ জন অভিযুক্তকে নির্দোষ বলে ঘোষণা করেন। উল্লেখ্য, অভিযুক্ত ২২ জনের মধ্যে ৮ জন মামলা চলাকালীন মারা গেছেন। অভিযুক্তদের আইনজীবী জানান, ‘‌উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে মুক্তি দেওয়া হয়েছে ২২ জনকে। মামলাকারীরা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ জোগাড় করতে ব্যর্থ হয়েছেন।’‌ 
প্রসঙ্গত ২০০২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি গুজরাটের গোধরায় সবরমতী এক্সপ্রেসের একটি বগিতে আগুন লাগিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা। মারা যান অন্তত ৫৯ জন। ঘটনার পরদিন গোধরার দেলল গ্রামে হিংসা ছড়ায়। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ১৭ জনকে হত্যার অভিযোগ ওঠে। সেই মামলাতেই মুক্তি পেলেন ২২ জন। 

আরও পড়ুন:‌ বাড়ির সামনে খুন করা হল মণিপুরের বিজেপি নেতাকে, ধৃত দুই 

আকর্ষণীয়খবর