আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুকে ঘিরে মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে চক্রান্তের জাল বোনা হচ্ছে। রবিবার এই অভিযোগ করলেন শিব সেনার শীর্ষ নেতা তথা রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় রাউত। এদিন তিনি বলেন, ‘‌বিহার এবং দিল্লির সরকার সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে যে রাজনীতি করছে, আমি মনে করি মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে। প্রকৃত সত্যিটা জানতে মুম্বই পুলিশ যথাসাধ্য চেষ্টা করছে। কিন্তু আমার মনে হয় কয়েকজন মানুষ পিছন থেকে নতুন একটা চিত্রনাট্য লিখছে। তারা চায় না সত্যিটা প্রকাশ পাক। সেজন্যই তারা সিবিআই–কে ব্যবহার করছে আর মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে চক্রান্ত হচ্ছে। প্রায় ৪০–৫০ দিন পর যখন মুম্বই পুলিশ একটা সিদ্ধান্তে আসতে পেরেছে, তখন চেষ্টা করা হচ্ছে জটিলতা তৈরি করতে। এর পিছনে কারা?‌ এরা হচ্ছে বিহার     সরকার এবং বিহারের নেতারা’‌।
এরপরই বিহার পুলিশের ডিজিপি–কে একহাত নিয়ে সঞ্জয় বলেছেন, তিনি বিজেপির টিকিটে নির্বাচন লড়েছেন, ফলে তিনি একজন রাজনৈতিক নেতা। বিহার পুলিশকে সমর্থন করায় বিরোধীদের ঠুকে তাঁর দাবি, শুধুমাত্র কয়েকজন অভিনেতার সঙ্গে বন্ধুত্ব আছে বলেই আদিত্য ঠাকরেকে এই মামলায় জড়ানো হচ্ছে। সংবাদমাধ্যমের একাংশও বিরোধীদের থেকে সমর্থন পেয়ে রাজ্য সরকারকে অস্থির করতে চাইছে বলে তাঁর অভিযোগ।
একইসঙ্গে তদন্তে এত দেরি হওয়ার জন্য মুম্বই পুলিশেরও কড়া সমালোচনা করে সঞ্জয় বলেছেন, পুলিশের উচিত ছিল প্রতিদিন এই মামলার দৈনিক সাংবাদিক বৈঠক করা। বলিউডে সন্ত্রাস ছড়ানোর বা কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তির সঙ্গে এই মামলার যোগাযোগ পেলে তাঁর বয়ান নথিভুক্ত করা উচিত ছিল পুলিশের। উল্টে অভিনেতাদের জেরার জন্য ডেকে গুজবে আরও ইন্ধন দিয়েছে মুম্বই পুলিশ, বলেই মনে করছেন শিব সেনার দাপুটে নেতা।
ছবি:‌ এএনআই      ‌

জনপ্রিয়

Back To Top