Bobby Chakraborty: ‘অসুখ সারান’, ববির দাওয়াই

আজকাল ওয়েবডেস্ক: শুধুমাত্র মাদকের নেশাই আসক্তি তৈরি করে না, তথ্যপ্রযুক্তির নানান হাতছানির আসক্তি মারাত্মক আকার নিতে পারে।

শৈশব থেকে কৈশোর আজ নানান সমস্যায় জর্জরিত। সেই সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় কী? কোন পথে আসতে পারে সমাধান? সেই চেষ্টাতেই অভিনেতা, সমাজকর্মী, শিক্ষক ববি চক্রবর্তীর এই আন্তরিক প্রয়াস, যা শুধু দেশের ভেতরই নয়, দেশের বাইরেও তিনি নিয়ে গিয়েছেন। প্রজেক্টের নাম AAC মানে Anti Addiction Campaign। সম্প্রতি টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপ পাবলিক স্কুল- কোলাঘাটের ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে তিনি তাঁর এই সচেতনতামূলক প্রকল্প তুলে ধরেন। যার মধ্যে রয়েছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কিছু বার্তা যা শুধু ছোটদের নয় বড়দেরও প্রতিদিনের নানার অসুস্থ পরিস্থিতি সামাল দিতে সাহায্য করবে। জীবনযাপনে নানান পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতেই ববি তাঁর এই প্রকল্প সাজিয়েছেন যাতে সমাজের নানাবিধ অসুখ সারানো যায়। অসুখ তো শুধু শরীরে নয়, মনেও হয়। আর হ্যাঁ, মননেও হয়! ববি সমসাময়িক এই কঠিন সময়ে সামাজিক অসুখ সারানোর এই জরুরি প্রয়াসে ব্রতী হয়েছেন। নানান প্রতিকূলতার মধ্যেও পজিটিভ এনার্জি নিয়ে কীভাবে বেঁচে থাকা যায় সেটাই আসল শিক্ষা। আমাদের প্রত্যেকের মধ্যেই একজন যোদ্ধা লুকিয়ে আছে। যুদ্ধ কীসের বিরুদ্ধে? যুদ্ধ হল, জনপ্রিয় ক্ষতিকারক ধারণার বিরুদ্ধে। জীবন-যাপনকে শুদ্ধ করাটাও একটা লড়াই। মাদক শুধু রাসায়নিকে নয়, পারিপার্শ্বিকেও থাকে। আশপাশের নানান কু-অভ্যাস জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলতে পারে। তাই নিজের ওপর ভরসা রাখতে হবে। ঠিক-ভুল চিনতে হবে। সংবেদনশীলতা বাড়াতে হবে। আত্ম-উপলব্ধিতে শান দিতে হবে। মানুষকে সম্মান করাই আসল ধর্ম। ববির প্রকল্পের পরতে পরতে তাই রয়েছে নিজেকে আরও উন্নততর মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার রেওয়াজ। সামিল হতে পারলে, লাভ বই ক্ষতি কিছু নেই। আরেকটু সুন্দর পৃথিবীর স্বপ্ন যাঁরা দেখেন বা অন্যকেও দেখতে সাহায্য করেন, ববি তাঁদের অন্যতম। অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা ববিকে।
 

আকর্ষণীয় খবর