Martial Art: মার্শাল আর্ট, আত্মরক্ষার বাইরেও নিজেকে জানার উপায়

পর্ণী ব্যানার্জি: তাড়াতাড়ি বাড়ি ফেরা, মেয়েরা ধর্ষিত হয়, মহিলাদের গভীর রাতে কাজ করা নিরাপদ নয় একেবারেই।

আসলে এই প্রতিটা কথা দুর্ভাগ্যবশত শুনতে হয় কমবেশি আমাদের সকলকেই। তুলনামূলক ভাবে দুর্বল লিঙ্গের হওয়ায়, ধরে নেওয়া হয় বাইরের দুনিয়ায় নিজেদের নিরাপদে রক্ষা করতে পারব না আমরা। কিন্তু কী বলছেন মার্শাল আর্টের মাস্টাররা।

 

 

 

 

 

মার্শাল আর্ট মাস্টার প্রাজ্ঞ দত্ত বলছেন, "মার্শাল আর্ট নিজেকে আরও ভালভাবে জানার একটি কার্যকর উপায়। একবার আপনি নিজেকে জানলে, আপনার মধ্যে যে আত্মবিশ্বাসের অনুভূতি তৈরি হবে, তাতে আপনি যে কোনও দুর্বল বা জটিল পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হবেন। লিঙ্গগত ভাবে নয়, অর্থাৎ মহিলা, পুরুষ বা শিশু হিসেবে নয়, প্রত্যেকেরই এই জীবন দক্ষতার অন্তত প্রাথমিক জ্ঞান শেখা উচিত। কারণ, এটি আপনাকে আপনার চারপাশের সম্ভাব্য সমস্যাগুলি মূল্যায়ন করতে এবং সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নিতে সাহায্য করবে৷’ সঙ্গে তিনি আরও বলেছেন, “আপনার যদি ড্রাইভিং বা সাঁতারের দক্ষতা থাকে, একইভাবে, আপনার মার্শাল আর্টও জানা উচিত।”

মার্শাল আর্ট নিয়ে তাঁর উপলব্ধি কী, এই আলোচনা প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, “এই শিল্প ফর্মটি কেবল একটি ঐতিহ্যবাহী যোদ্ধার ভাগ তা নয়। মার্শাল আর্টে থেরাপিউটিক এবং নিরাময় উভয় বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা শারীরিক এবং মানসিক সুস্থতার ভারসাম্য বজায় রেখে একটি সুশৃঙ্খল জীবন যাপনের পথ তৈরি করে। একই সঙ্গে প্রচার করে স্বাস্থ্যকর জীবনধারা। এমনকি মৌলিক স্তরে আত্মবিশ্বাস এবং ফোকাস বাড়িয়ে মানুষের পর্যবেক্ষণ দক্ষতা বৃদ্ধি করে’।

মার্শাল আর্ট আমাদের উদ্বেগ এবং প্যানিক আক্রমণের সমস্যাগুলি কাটিয়ে উঠতেও সাহায্য করতে পারে। যদিও আমরা জানি যোগব্যায়াম, ধ্যান, পুষ্টিকর খাবার এবং ভাল ঘুম এই ধরনের মানসিক ব্যাধির সঙ্গে মোকাবিলার অস্ত্র, তবে মার্শাল আর্ট বিস্ময়কর ভাবে কাজ করে।

আকর্ষণীয় খবর