‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সম্পর্ক থাকলে পরস্পরের দৈনন্দিন জীবনযাপনের হালহকিকতের খোঁজ রাখাটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। পরস্পরের সুবিধা–অসুবিধার দেখভাল তো করবেনই প্রেমিক–প্রেমিকা বা স্বামী–স্ত্রীরা। কিন্তু এঁদের মধ্যে কেউ একজন যদি হন অত্যন্ত সন্দেহপ্রবণ, তাহলে কিন্তু সম্পর্কটাই বিষিয়ে যেতে পারে। কী করে বুঝবেন, আপনার সঙ্গী কিংবা সঙ্গিনী সন্দেহপ্রবণ কি না?‌ আসুন দেখে নেওয়া যাক কীভাবে সেটা বুঝতে পারবেন আপনি?‌
❏‌ আমাদের প্রত্যেকেরই একটা একান্ত ব্যক্তিগত পরিসর থাকে। যতই নিকটজন হন না কেন, সবকথা সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেওয়া যায় না। এটা বুঝতে পারাই বুদ্ধিমানের লক্ষণ। এটা যদি আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীটি বুঝতে না চান, দৈনন্দিন খুঁটিনাটির সব বিষয়ে নাক গলাতে চান, তাহলে সাবধান। 
❏‌ মোবাইল ফোন, ফেসবুক, ই–মেলের পাসওয়ার্ড অনেকেই তাঁদের সঙ্গী বা সঙ্গিনীর সঙ্গে ‘‌শেয়ার’‌ করেন। স্বচ্ছ্বতা থাকা ভাল। কিন্তু একান্ত ব্যক্তিগত পরিসরের ক্ষতি করতে নেই। যদি আপনার আপত্তির পরেও সঙ্গী বা সঙ্গিনী জোরাজুরি করেন, তাহলে বুঝবেন আসলে তিনি আপনাকে সন্দেহই করছেন।
❏‌ আপনার যাবতীয় গতিবিধির ওপরে কি তিনি নজর রাখছেন?‌ আপনাকে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছেন?‌ সাবধান, ব্যাপারটা আটকাতে হবে আপনাকেই।
❏‌ মনে রাখবেন, কোনও কারণেই আপনার সঙ্গে অভব্যতা করার অধিকার কারও নেই। বিশেষত বাইরের লোকের সামনে তাঁর কোনও কথা মান্য করতে রাজি না হলে যদি তিনি ঝগড়া করেন, আপনাকেই ভেবে নিতে হবে এই সম্পর্ক আপনি আদৌ চান কি না।

জনপ্রিয়

Back To Top