আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শীতের সময় এলেই জল ‌ঠান্ডা থাকে। এর জন্যই এইসময় অনেকেই জল থেকে দূরে থাকেন। কিন্তু জানেন কি ওই ঠান্ডা জল আপনাকে চনমনে রাখতে কতটা সাহায্য করে। জেনে নিন শীতের ঠান্ডা জলে স্নান করে কিভাবে নিজেকে চনমনে রাখবেন–
❏ ঠান্ডা জলে স্নান করলে দেহের রক্ত প্রবাহমাত্রা তুলনামূলক বৃদ্ধি পায়। ঠান্ডা জলের স্পর্শতে আমাদের ত্বক সঙ্কুচিত হয় যায়। ফলে রক্ত চলাচল কিছুটা ধীর গতিতে হওয়ার কারণেই রক্তচাপ বেড়ে যায় এবং শিরা-উপশিরায় দ্রুত গতিতে রক্ত ধাবিত হতে থাকে।   
❏ দেহের স্বাচ্ছন্দ্য ফিরিয়ে আনে-ঠাণ্ডা জল। শরীরের এই স্বাচ্ছন্দ্য ঘুমের সমস্যা যারা ভোগেন তাদের উপকারে আসে। 
❏‌ ঠাণ্ডা জল গায়ে লাগলে শীত লাগে। কারণ ত্বক তার স্বাভাবিক তাপমাত্রা হারায় বলে। শীতের ঠান্ডা পরিবেশে তাপমাত্রার সঙ্গে মানাসই হতে দেহ নিজেই তাপ উৎপন্ন করে। এর জন্য দেহের কিছু কার্বহাইড্রেট খরচ হয়। গোটা এই ঘটনা দেহের সহজাত প্রক্রিয়া। ঠান্ডা জলের ব্যবহারে দেহের এই প্রক্রিয়াটি সচল থাকে।
❏ রক্তের শ্বেত কণিকা বাড়াতে চাইলে ঠাণ্ডা‌ জলে স্নান করুন। ঠাণ্ডা ত্বক নিজেই তাপ উৎপাদনের সময় অধিক পরিমাণে শ্বেত কণিকার জন্ম দেয়। আর রক্তের এই কণিকা আপনার দেহের প্রতিরোধক ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।
❏ আমাদের অজান্তে কাজের সময় দেহের পেশীর সূক্ষ্ম টিস্যুগুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এদের আবার পূর্বের সুস্থতা ফিরিয়ে আনতে বিশ্রামের দরকার। ঠাণ্ডা জল পরিশ্রমের পর দেহের পেশীকে আরাম দেয়।
❏ ঠান্ডা জলের ব্যবহারে পুরনো কিছু ব্যাথা কমে যেতে পারে, চুলকানি দূর হয়, চুলের শ্রীবৃদ্ধি, দেহের অবাঞ্চিত উত্তেজনা প্রশমন হয় পাশাপাশি স্নায়ুর দুর্বলতা দূর করতে সাহায্য করে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top